6 Convicts Including Munni in Rifat Sharif Murder Case Gets Sentenced to Death Verdict

রিফাত শরীফ হত্যা মামলার রায় ঘোষণা – ৬ জনের ফাঁসি !!!

বাংলাদেশ

বাংলাদেশের বরগুনার রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় (Rifat Sharif Murder Case) তাঁর স্ত্রী মিন্নিসহ ৬ জনকে ফাঁসির আদেশ দেওয়া হয়েছে। তবে এই গুরুত্বপূর্ণ …

নিজস্ব সংবাদদাতা: বাংলাদেশে এক যুগান্তকারী রায় ঘোষিত হয়েছে। আজ দেশের অগণিত মানুষ এর অপেক্ষায় ছিলেন। বাংলাদেশের বরগুনার রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় (Rifat Sharif Murder Case) তাঁর স্ত্রী মিন্নিসহ ৬ জনকে ফাঁসির আদেশ দেওয়া হয়েছে। তবে এই গুরুত্বপূর্ণ মামলার বাকি চার আসামিকে খালাস দেওয়া হয়েছে। আজ বুধবার বরগুনার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. আছাদুজ্জামান এই রায় ঘোষণা করেন।

[ আরও পড়ুন ] উপনির্বাচনের ঘোষণা – ১২ই নভেম্বর ঢাকা-১৮, সিরাজগঞ্জ-১

এ মামলার সাথে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী বরগুনা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট ভুবন চন্দ্র হালদারও যুক্ত ছিলেন।

6 Convicts Including Munni in Rifat Sharif Murder Case Gets Sentenced to Death Verdict
6 Convicts Including Munni in Rifat Sharif Murder Case Gets Sentenced to Death Verdict

আজকের এই রায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত বাকি পাঁচ আসামি হলেন রাকিবুল হাসান রিফাত ফরাজি (২৩), আল কাইউম ওরফে রাব্বি আঁকন (২১), মোহাইমিনুল ইসলাম ওরফে সিফাত (১৯), রেজওয়ান আলী খান ওরফে টিকটক হৃদয় (২২) ও মো. হাসান (১৯)। আর খালাস পেয়েছেন রাফিউল ইসলাম, মো. সাগর, কামরুল ইসলাম সাইমুন ও মো. মুসা। তবে এই মুসা এখনো পলাতক আছেন। গত বছরের ২৬শে জুন, বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে রিফাত হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

6 Convicts Including Munni in Rifat Sharif Murder Case Gets Sentenced to Death Verdict
6 Convicts Including Munni in Rifat Sharif Murder Case Gets Sentenced to Death Verdict

সেই নারকীয় ঘটনার পরের দিন এই হত্যা মামলা দায়ের করেন নিহত রিফাতের বাবা আবদুল হালিম দুলাল শরীফ। সেখানে ১২ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ৫-৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা আনা হয়। ১লা সেপ্টেম্বর প্রাপ্তবয়স্ক ও অপ্রাপ্তবয়স্ক; দু’ভাগে বিভক্ত করে ২৪ জনের বিরুদ্ধে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করে পুলিশ। এখানে প্রাপ্তবয়স্ক ১০ জন ও অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ জনকে অভিযুক্ত করা হয়। তবে রিফাত হত্যা মামলার প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির বিরুদ্ধে ৭৬ জন সাক্ষ্য দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *