Cash Gold and Arms Found at Awami League Leader House

Awami League: দুই নেতার ফ্লাট থেকে উদ্ধার কোটি টাকা, সোনা

বাংলাদেশ

আওয়ামী লীগের (Awami League) দুই নেতার বাসায় অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ নগদ টাকা এবং স্বর্ণ উদ্ধার করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন।

অবিশ্বাস্য হলো সত্যি। বাংলাদেশের রাজধানীর পুরান ঢাকার গেন্ডারিয়ায় স্থানীয় আওয়ামী লীগের (Awami League) দুই নেতার বাসায় অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ নগদ টাকা এবং স্বর্ণ উদ্ধার করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন। দেশজুড়ে ক্যাসিনো ও অবৈধ জুয়ার বিরুদ্ধে চলমান অভিযানের অংশ হিসেবে আজ সকালে এই অভিযান চালানো হয়।র‍্যাবের গণমাধ্যম শাখার জ্যেষ্ঠ সহকারী পরিচালক মিজানুর রহমান ভূঁইয়া জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সকাল ১০টার দিকে র‌্যাব-৩ এর একটি দল গেন্ডারিয়ার মুরগিটোলা এলাকার একটি ভবনের দুটি ফ্লাটে অভিযান চালায়।

র‌্যাব-এর এ কর্মকর্তা বলেন, গেন্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি এনামুল হক এবং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রুপন ভূঁইয়া যথাক্রমে এই দুটি ফ্লাটের মালিক। ঢাকা মহানগর (দক্ষিণ) আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ বলেন, ‘এনামুল হক ও রুপন ভূঁইয়া গেন্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের দুই নেতা।’ গ্রেপ্তার হওয়া এনামুল হক থানা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আর রুপন ভূইয়া যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে আছেন। অভিযোগ প্রমাণিত হলে আমরা এ দুজনের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। গত শুক্রবার রাজধানীর সবুজবাগ, বাসাবো, মতিঝিলসহ বিভিন্ন এলাকায় প্রভাবশালী ঠিকাদার হিসেবে পরিচিত যুবলীগ নেতা এস এম গোলাম কিবরিয়া শামীম ওরফে জি কে শামীমকে আটক করে র‍্যাব। এ সময় বেশ কয়েকটি আগ্নেয়াস্ত্র ও মাদক দ্রব্য ছাড়াও নগদ এক কোটি ৮০ লাখ টাকা, ১৬৫ কোটি টাকার ওপরে এফডিআর করার নথি জব্দ করা হয়।

র‍্যাব–৩ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল সফিউল্লাহ বুলবুল জানান, ‘আজ সকাল ১০টায় এনামুল হক ও রুপন ভূঁইয়ার বাসায় অভিযান চালানো হয়। কিন্তু তাঁরা দুজনই পালিয়ে গেছেন। তাঁদের রাজনৈতিক পরিচয় সম্পর্কে জানি না, তবে তাঁরা নিজেদের নামে বেশ কিছু পোস্টার টানিয়েছে।’ রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন স্থানে অবৈধ ক্যাসিনোতে অভিযান চালাচ্ছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। তারই ধারাবাহিকতায় সোমবার ফু-ওয়াং, পিয়াসী ও ড্রাগন বারে অভিযান চালায় পুলিশ। অভিযানে অবৈধ কিছু পায়নি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। অথচ এর আগে পরিচালিত অভিযানে অবৈধ মাদক, ক্যাসিনো সরঞ্জাম, এমনকি অবৈধ অস্ত্রও উদ্ধার করা হয়। চারটি ক্লাবে অভিযান চালানো হয়। ক্লাবগুলো হলো- আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ, দিলকুশা স্পোর্টিং ক্লাব, ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব ও মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। অভিযানে চারটি ক্লাবেই ক্যাসিনোর সরঞ্জাম পেয়েছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *