Mixing chemicals in fish can cause 7 years of imprisonment in Bangladesh

বাংলাদেশে মাছে রাসায়নিক মেশালে সাত বছরের দণ্ড

বাংলাদেশ

বাংলাদেশে মাছে ক্ষতিকর রাসায়নিক (Chemicals in fish) মিশিয়ে বিক্রির অপরাধে সাত বছরের কারাদণ্ড ও পাঁচ লাখ টাকা জরিমানার বিধান রেখে খসড়া আইন …

নিজস্ব সংবাদদাতা: বাংলাদেশে বর্ষা শুরু হয়েছে। এবার অগণিত রুপালি ইলিশ ওঠার সময়। করোনার জন্য একটু সমস্যা থাকলেও মাছের জন্য জলে নামা থামেনি। কিন্তু খাওয়ার পাতে ঠিক মাছ উঠবে তো! সেই সংশয়ের মুলে আছে কৃত্রিম ভাবে মাছকে সজীব রাখার ক্ষতিকর প্রক্রিয়া। বাংলাদেশে মাছে ক্ষতিকর রাসায়নিক (Chemicals in fish) মিশিয়ে বিক্রির অপরাধে সাত বছরের কারাদণ্ড ও পাঁচ লাখ টাকা জরিমানার বিধান রেখে খসড়া আইন সংসদে উঠেছে। সমগ্র দেশবাসীর স্বার্থে এই বিষয়টি খুব গুরুত্বপূর্ণ।

Mixing chemicals in fish can cause 7 years of imprisonment in Bangladesh
Mixing chemicals in fish can cause 7 years of imprisonment in Bangladesh

আজ বুধবার মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এই বিলটি উত্থাপন করেন। বিলটি অধিকতর পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে কমিটিকে ৩০ দিনের মধ্যে সংসদে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

বাংলাদেশে প্রাকৃতিক দুর্যোগে ১০,৯০০ মেট্রিক টন চাল [ আরো পড়ুন ]

১৯৮৩ সালের আইনটি রহিত করে বাংলায় নতুন আইন প্রণয়নের জন্য বিলটি উত্থাপন করা হয়েছে। এই বিলে নিরাপদ মাছের উৎপাদন নিশ্চিত করতে মৎস্য খামারিদের নিবন্ধন বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এর সাথে মৎস্য পণ্যে ভেজাল দিলে বা খামারে নিষিদ্ধ ওষুধ ব্যবহার করলে কম করে দুই বছরের কারাদণ্ড ও সর্বোচ্চ ৮ লাখ টাকা জরিমানা দিতে হবে।

[ আরো পড়ুন ] বাংলাদেশে ঢাকাসহ দেশের ২৫৪টি পত্রিকা বন্ধ , চালু ৮৬টি

সকল প্রকার নরম ও শক্ত অস্থি বিশিষ্ট মৎস্য, সাদা ও লবণাক্ত জলের চিংড়ি, উভচর জলজপ্রাণী, কচ্ছপ, কুমির, কাঁকড়া জাতীয় প্রাণী, শামুক, ঝিনুক, ব্যাঙ এবং এসব জলজপ্রাণীর জীবন্ত কোষকে মাছ হিসেবে গণ্য করা হবে। জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বাজারের ক্রেতাদের পণ্যের গুণগত ও প্রক্রিয়াগত মানসম্পর্কিত চাহিদা, রপ্তানিযোগ্য পণ্যের বহুমুখীতা এবং আন্তর্জাতিক বাজারের পরিধি- প্রতিযোগিতা দেখা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *