World Peace Conference 2021 will be held in Bangladesh

বাংলাদেশে আগামী বছর ‘বিশ্ব শান্তি সম্মেলন’

বাংলাদেশ

বাংলাদেশ সরকার পৃথিবীর শান্তি ও সহনশীলতার সংস্কৃতিকে শক্তিশালী করতে আগামী বছর ‘বিশ্ব শান্তি সম্মেলন’ (World Peace Conference 2021) …

নিজস্ব সংবাদদাতা: সংক্রমণের ছায়া এখন গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে আছে। বাংলাদেশ সরকার এই ভাইরাস মোকাবিলায় যথেষ্ট কাজ করছে। একই সাথে পৃথিবীর শান্তির বিষয়ে সচেতন। সেই কারণেই, বাংলাদেশ সরকার পৃথিবীর শান্তি ও সহনশীলতার সংস্কৃতিকে শক্তিশালী করতে আগামী বছর ‘বিশ্ব শান্তি সম্মেলন’ (World Peace Conference 2021) আয়োজন করবে। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে এই সম্মেলনের আয়োজন করা হবে। এই তথ্য জানান বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন। মুজিববর্ষ উপলক্ষে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে এক ভার্চুয়াল ‘বঙ্গবন্ধু লেকচার সিরিজ’-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এই কথা জানান।

World Peace Conference 2021 will be held in Bangladesh
World Peace Conference 2021 will be held in Bangladesh

বাংলাদেশের মহামান্য পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, সংঘাত নিরসনে আলোচনা, কূটনীতি ও শান্তিপূর্ণ উপায়ের পথনির্দেশক ছিলেন এদেশের বঙ্গবন্ধু। সেই কারণেই সকলকে বর্ণ, জাতি পরিচয়, ধর্ম, নির্বিশেষে সহনশীলতার সংস্কৃতি ধারণ করতে হবে। জানা যাচ্ছে, নোবেল বিজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন মহাশয় আগামী মাসে বঙ্গবন্ধুর ওপর প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন। বাংলাদেশে গোটা আগামী বছর জুড়ে প্রতি মাসে দেশ-বিদেশের বিশিষ্টজনেরা এই লেকচারে অংশগ্রহণ করবেন। আসলে শান্তি ছাড়া পৃথিবীতে কোনো দেশেই কোনো উন্নয়ন হতে পারে না।

[ আরও পড়ুন ] বাংলাদেশে প্রভিশন ঘাটতি ১২ ব্যাংকে ৯৪৬৯ কোটি টাকা

ওপাশে অশান্তি তৈরি হলে, ভিন্ন বিশ্বাস ও মতের মধ্যে সহনশীলতার ঘাটতি দেখা যায়। তাই এই মুহূর্তে দেশের সকলকে আরও বেশি করে সহনশীল হতে হবে। কারণ বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক আদর্শ সবসময় পরম সহনশীলতার শিক্ষা দেয়। মায়ানমারে রোহিঙ্গাদের বাস্তুচ্যুত হওয়ার পেছনে এই অসহনশীলতাকে দায়ী করেন ড. মোমেন। ‘সবার সঙ্গে বন্ধুত্ব, কারও সঙ্গে বৈরিতা নয়’– বঙ্গবন্ধুর পররাষ্ট্রনীতির কথা তুলে ধরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. মোমেন জানান, বাংলাদেশ এখনও এই নীতি মেনে সংঘাত ও যুদ্ধের বিরোধিতা করে। আগামীতে বাংলাদেশ বিশ্ব শান্তির এক নতুন দিগন্তের সূচনা করবে।

[ আরও পড়ুন ] বাংলাদেশে বুলেট ট্রেন! – ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম ৫৫ মিনিটে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *