Election Commission Banned Trailer of Mamata Banerjee Biopic Baghini

‘পিএম নরেন্দ্র মোদি’ পর বিতর্কে মমতার ‘বাঘিনী’ বায়োপিক – CPI(M) Goes To Election Commission On Mamata Banerjee Biopic Baghini

পশ্চিমবঙ্গ বিনোদন

জানা যাচ্ছে “বাঘিনী” চলচ্চিত্রটি ২০১৯ সালের ৩ মে মুক্তি পাবে। এর পরিচালক নেহাল দত্ত ও প্রযোজক পিঙ্কি পাল মণ্ডল| ইতিমধ্যেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বায়োপিকের উপর স্থগিতাদেশ জারি করেছে নির্বাচন কমিশন।

“বায়োপিকের” ব্যাপ্তি বাড়ছে – বাড়ছে বিতর্কের বিষয়| আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের সময়ে চলছে অন্য প্রচারের মাহাত্ম্য| মোদির বায়োপিক ‘পিএম নরেন্দ্র মোদি’ নিয়ে ‘নয়া’ পরামর্শ দিয়েছিলো সুপ্রিম কোর্ট| নিষিদ্ধ করার আগে নির্বাচন কমিশনকে সিনেমাটি দেখার পরামর্শ দিল শীর্ষ আদালত। তারপর কমিশনের তরফ থেকে জানানো হয়েছিল, নির্বাচন পর্ব একদম শেষ না হওয়া পর্যন্ত এই ছবি মুক্তি দেওয়া যাবে না। এবার মোদির বায়োপিকের পর এবার নির্বাচনী বিধির গোরোয় মমতার বায়োপিক ‘বাঘিনী’।

CPI(M) Goes To Election Commission On Mamata Banerjee Biopic Baghini
CPI(M) Goes To Election Commission On Mamata Banerjee Biopic Baghini

সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরির দাবি, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর বায়োপিক এর ট্রেলার এর প্রদর্শন নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গ করছে। তবে নির্মাতাদের দাবি এই ছবি একেবারেইবায়োপিক নয়। এটি আসলে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর জীবনসংগ্রাম থেকে অনুপ্রাণিত হয়েই নির্মিত হয়েছে।

কিন্তু এসব কথা “ভাবের কথা” মানতে চাইছেন না বিরোধীরা। বাঘিনীর ট্রেলার মুক্তির পরই নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হয়েছে সিপিএম। তাদের দাবি, ভোটের বাজারে ‘বাঘিনী’ ছবির ট্রেলার মুক্তি নির্বাচনের বিধি ভঙ্গ করছে। তাই যেন এর বিরুদ্ধে সঠিক ব্যবস্থা নেয় নির্বাচন কমিশন। সদ্য মুক্তি পেয়েছে ‘বাঘিনী’ ছবির ট্রেলার।

Mamata Banerjee Biopic Baghini Scene
Mamata Banerjee Biopic Baghini Scene

আর এই ট্রেলার দেখেই বোঝা গিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছোটবেলা থেকে মুখ্যমন্ত্রী হওয়া পর্যন্ত গোটা সফরটাকেই তুলে ধরা হয়েছে এখানে। বহুলচর্চিত সেই সিঙ্গুর-নন্দীগ্রামের ঘটনাও তুলে ধরা হয়েছে। আবার মমতার রাইটার্স বিল্ডিংয়ের সারা জাগানো ঘটনাও রয়েছে ছবিতে। কিন্তু প্রযোজকের তরফে বলা হয়েছে ছবিটি একেবারেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বায়োপিক নয়। জীবন থেকে অনুপ্রাণিত এই ছবি, মানতে রাজি নয় সিপিএম।

জানা যাচ্ছে “বাঘিনী” চলচ্চিত্রটি ২০১৯ সালের ৩ মে মুক্তি পাবে। এর পরিচালক নেহাল দত্ত ও প্রযোজক পিঙ্কি পাল মণ্ডল| ইতিমধ্যেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বায়োপিকের উপর স্থগিতাদেশ জারি করেছে নির্বাচন কমিশন।

Biopic of Indian Politicians
Biopic of Indian Politicians

ভোটের মরশুমে কোনওভাবেই মুক্তি পাবে না ছবিটি। কারণ এতে নির্বাচনের বিধিভঙ্গ হচ্ছে। দেশের কংগ্রেস-সহ একাধিক বিরোধী দল এই অভিযোগ তুলে দেশের একাধিক আদালতের দ্বারস্থ হয়। শেষে সুপ্রিম কোর্ট জানায়, এই সংক্রান্ত যাবতীয় সিদ্ধান্ত নেবে নির্বাচন কমিশন।এরপরই কমিশনের তরফ থেকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এবার সিপিএমের দাবি, ‘বাঘিনী’ নিয়েও কমিশনের নজর দেওয়া উচিত। কারণ নির্মাতারা যতই দাবি করুক, ট্রেলারেই যা দেখানো হয়েছে, তাতেই স্পষ্ট তৃণমূল সুপ্রিমোকে ঘিরেই রচিত হয়েছে ছবির চিত্রনাট্য। ভোটের মরশুমে এই ট্রেলার মুক্তি দেশের নির্বাচনের বিধি ভঙ্গ করছে বলেই জানিয়েছে তারা। এবার দেখার, কমিশন কি সিদ্ধান্ত নেয়|

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *