26 Crore Rupees Fund for Bangla Sahayata Kendra in West Bengal

রাজ্যে “Bangla Sahayata Kendra” গড়তে ২৬ কোটি

কলকাতা পশ্চিমবঙ্গ

মানুষের কাজ অনেক দ্রুত, সঠিক ও সহজে করে দিচ্ছে। সেই ধারার নাম রাজ্যের “বাংলা সহায়তা কেন্দ্র” (Bangla Sahayata Kendra News) রাজ্যের …

নিজস্ব সংবাদদাতা: সময়ের সাথে মানুষের জীবনধারার গতি পরিবর্তিত হয়েছে। আর এই গতির অন্যতম নিয়ামক ইন্টারনেট। মানুষের কাজ অনেক দ্রুত, সঠিক ও সহজে করে দিচ্ছে। সেই ধারার নাম রাজ্যের “বাংলা সহায়তা কেন্দ্র” (Bangla Sahayata Kendra News) । লকডাউন পর্বে রাজ্যের বহু মানুষের কাছে কেন্দ্রের পরিষেবা নিয়ে পৌঁছে গিয়েছে এই মাধ্যম।

কেন্দ্রীয় বৈদ্যুতিন ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রকের অধীন তথ্যমিত্র কেন্দ্র নানা প্রয়োজনে লাগে। এ বার বাংলা সহায়তা কেন্দ্রগুলি চালু করার জন্য প্রাথমিক ভাবে প্রায় ২৬ কোটি টাকা বরাদ্দ করল নবান্ন। সূচনার পর্ব হয় অনেক আগে। সব জেলাশাসকের কার্যালয়, ব্লক–‌মহকুমা অফিস থেকে স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও গ্রন্থাগারে এই সহায়তা কেন্দ্র খোলা হবে। অনলাইনে এই ব্যবস্থা সাধারণ মানুষকে অনেক সুবিধা এনে দেবে।

26 Crore Rupees Fund for Bangla Sahayata Kendra in West Bengal
26 Crore Rupees Fund for Bangla Sahayata Kendra in West Bengal

শুরুতে ২৭৪৪টি এ ধরনের ‘বাংলা সহায়তা কেন্দ্র’ (BSK) ৩৪২টি বিডিও, ৬৬টি এসডিও এবং ২৩টি জেলাশাসকের অফিস–‌সহ ১৫০০ প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্র, ৮১৩টি রাজ্য সরকার–‌পোষিত গ্রন্থাগার আছে। এর পরিকাঠামো সাজাতে প্রতি সহায়তা কেন্দ্রে ২ জন কর্মী, ২টি করে কম্পিউটার ও স্ক্যানার–‌সহ প্রিন্টার এবং ইন্টারনেট ব্যবস্থা থাকবে। সরকারের নির্দেশ, আগামী ১৫ই জুলাইয়ের আগে সব সহায়তা কেন্দ্র চালু করতে হবে।

[ আরো পড়ুন ] ৫২৭ কোটি টাকা – মেট্রো নিউ গড়িয়া থেকে এয়ারপোর্ট

এইমুহূর্তে রাজ্যে প্রায় ১৭,৫০০ সিএসকে (CSK) সক্রিয় আছে। লকডাউনের গত তিন মাসে রাজ্যের কয়েক কোটি মানুষের কাছে কেন্দ্রের বিভিন্ন পরিষেবা পৌঁছে দিয়েছে কমবেশি ১৩,০০০ সিএসকে। কেন্দ্র প্রতি মাসে জনধন অ্যাকাউন্ট গ্রাহকদের জনপ্রতি ৫০০ টাকা আর্থিক সাহায্য পাঠায়। অধিকাংশ উপভোক্তা, সিএসকে-র মাধ্যমে সেই টাকা সংগ্রহ করেন।

[ আরো পড়ুন ] ধর্মতলায় হবে না ২১শের সভা – ভার্চুয়াল ভাষণ বুথে স্মরণ

এর পাশে দ্রুত বিএসকে তৈরির জন্য বার্তা দেওয়া হয়েছে জেলা প্রশাসনকে। প্রস্তাবিত ২৭৪৪টি বিএসকে-র প্রতিটির জন্য প্রাথমিক ভাবে ৯৫ হাজার টাকা বরাদ্দ হয়েছে। এই অর্থ দিয়ে ইন্টারনেট সংযোগ-সহ দু’টি ডেস্কটপ কম্পিউটার, স্ক্যানার-সহ প্রিন্টার, প্রয়োজনীয় আসবাব কেনা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *