3 Investigating Officers Out of Chit Fund Scams Investigation in West Bengal

Chit Fund Scams: চিটফান্ড তদন্তের মূল অফিসাররা সরলো

কলকাতা

সারদা, নারদ এবং রোজভ্যালি মামলার (Chit Fund Scams) তিন তদন্তকারী অফিসারকে কলকাতা ইউনিট থেকে সরিয়ে দিল কেন্দ্রীয় তদন্ত এজেন্সি …

নির্বাচনের সময় রাজ্যের চিটফান্ডের নিদ্রা ভাঙ্গে। দিনরাত এক করে দে-ছুট লাগে তদন্তের ভারপ্রাপ্ত অফিসাররা। অনেক বছর হয়ে গেছে, কিছু যে হওয়ার নয়, তা অনেকটা পরিষ্কার। তবু মানুষকে ফাঁপা স্বস্তি দিতেই মাঝে মাঝে ছোটাছুটি শুরু হয়। সারদা, নারদ এবং রোজভ্যালি মামলার (Chit Fund Scams) তিন তদন্তকারী অফিসারকে কলকাতা ইউনিট থেকে সরিয়ে দিল কেন্দ্রীয় তদন্ত এজেন্সি। সরিয়ে দেওয়া হয়েছে আরও এক ডিএসপি পদমর্যাদার অফিসারকে। আগামী এর ফলে কি উন্নত হবে সেইসব তদন্তের, তা শুধু তারাই জানেন।

যদিও এই নতুন বছরের শুরুতেই বড়সড় রদবদল করা হল কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিবিআইয়ে। চিটফান্ডের মামলায় তেমনভাবে সাফল্য পায়নি সিবিআই। ফলে কলকাতায় বেশ কয়েকজন আধিকারিককে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। যদিও সিবিআই শীর্ষ দফতর সূত্রে দাবি, এটা রুটিন বদলি। কলকাতায় কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার শাখা থেকে বদলি হয়েছেন দুই এসপি ও এক এএসপি পদমর্যাদার অধিকারিক। কলকাতার ইকোনমিক অফেন্স উইংস-৪ এর এসপি পার্থ মুখোপাধ্যায়কে দিল্লিতে হেড কোয়ার্টারে এআইজি (পলিসি) করে পাঠানো হয়েছে।

তাঁর জায়গায় এলেন শান্তুনু কর, তিনি কলকাতাতেই অন্য দায়িত্বে ছিলেন। পাশাপাশি এসপি পদমর্যাদার আধিকারিক জয়নারায়ণ রানাকে ভুবনেশ্বর থেকে কলকাতায় আনা হয়েছে। এছাড়াও এএসপি পদমর্যাদার সঞ্জয় সিনহাকে দিল্লি থেকে কলকাতায় পাঠানো হয়েছে। ২০১৯-এর গোড়াতেই রোজভ্যালি মামলার তদন্তকারী অফিসার হিসেবে সিবিআইয়ের কলকাতা ইউনিটে পাঠানো হয়েছিল চোজম শেরপাকে। এই তদন্তকারী অফসারকে পাঠানো হয়েছে ভুবনেশ্বরে। তাঁর সঙ্গেই কলকাতা থেকে অন্যত্র পাঠানো হয়েছে রোজভ্যালি মামলার অন্যতম তদন্তকারী ডিএসপি ব্রতীন ঘোষালকে। সব মিলিয়ে শুধু বাসা বদল হচ্ছে, তদন্তের অগ্রগতি মহা তিমিরে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *