4 Convicts to be Hanged According to Nirbhaya Case Update

Nirbhaya Case Update: শেষ আবেদন খারিজ সুপ্রিম কোর্টে

কলকাতা

শেষ চেষ্টা করতে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করেছিল নির্ভয়া কাণ্ডের (Nirbhaya Case Update) অন্যতম দোষী পবন গুপ্ত। কিন্তু শেষ রক্ষা হল না। ছয় সদস্যের …

দেশ জুড়ে যখন করোনার আতঙ্ক, ঠিক তখনি নির্ভয়া কাণ্ডের ইতি ঘোষণা হলো। শেষ চেষ্টা করতে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করেছিল নির্ভয়া কাণ্ডের (Nirbhaya Case Update) অন্যতম দোষী পবন গুপ্ত। কিন্তু শেষ রক্ষা হল না। ছয় সদস্যের ডিভিশন বেঞ্চ খারিজ করে দিল পবনের এই শেষ আবেদন। আবেদন খারিজ করে বেঞ্চ জানায়, ‍‌‘মৌখিক শুনানির আবেদন খারিজ করা হল। আমরা রায় সংশোধনের আর্জি এবং সেই সংক্রান্ত নথি খতিয়ে দেখেছি। তাই এই আবেদন খারিজ করা হল।’‌ ফলে আগামীকাল, ২০শে মার্চ, দিল্লির তিহার জেলে ফাঁসি হওয়ার কথা এই মামলায় দোষী সাব্যস্ত চারজনের – মুকেশ সিং (৩২), পবন গুপ্ত (২৫), বিনয় শর্মা (২৬), এবং অক্ষয় কুমার সিং (৩১)। এই ফাঁসির সময় সকাল সাড়ে পাঁচটা।

১-এপ্রিল থেকে দেশজুড়ে শুরু হচ্ছে এনপিআর – আরও জানতে ক্লিক করুন …

কয়েকদিন আগেই বস্তা ব্যবহার করে তিহাড় জেলে মহড়া দেওয়া হল ফাঁসির। ২০১২ সালে ‘নির্ভয়া’ গণধর্ষণ ও নৃশংস অত্যাচারে তারা দোষী সাব্যস্ত হয়েছে। প্রত্যেক অপরাধীর যা ওজন, বস্তায় সেই ওজনের পাথর প্রভৃতি পুরে সেই দড়িগুলি পরীক্ষা করে দেখেন জেল কর্তৃপক্ষ। তিহাড়ের জেল ৩-এ এই পরীক্ষাটি করা হয়। এটিই এশিয়া মহাদেশের সবচেয়ে বড় জেল। জেল ৩-এই সংসদে হামলায় অপরাধী আফজল গুরুকে ফাঁসি দেওয়া হয়েছিল ২০১৩ সালে।

নির্ভয়ার মা জানান, “আদালত ওদের এতবার সুযোগ দিয়েছে যে ওরা অভ্যস্ত হয়ে গেছে ফাঁসির আগে যে কোনও একটা বাধা খাড়া করে ফাঁসি আটকে দিতে। এখন আমাদের আদালতগুলো বুঝে গেছে ওদের ফন্দি। কাল বিচার পাবে আমার মেয়ে।” এর আগে প্রথম বার দিল্লি হাইকোর্টে এই একই আবেদন জানিয়েছিল পবন। কিন্তু সেখানে সেই দাবি ধোপে টেকেনি। এর পর সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি আর ভানুমতীর নেতৃত্বাধীন বেঞ্চে পবন আবেদন করে অপরাধ ঘটানোর সময় সে নাবালক ছিল। কিন্তু তা খারিজ হয়ে যায়। এখন আর কোনও আইনি রাস্তাই খোলা নেই ধর্ষকদের। ফলে আর ফাঁসি পিছিয়ে যাওয়ার কোনও সম্ভাবনা নেই। শেষ হবে এক অধ্যায়ের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *