4 Convicts to be Hanged on 22nd January as per Nirbhaya Verdict 2020

Nirbhaya Verdict 2020: ২২শে জানুয়ারী ফাঁসি খুনিদের

কলকাতা

শেষ পর্যন্ত ফাঁসির সাজাই (Nirbhaya Verdict 2020) বহাল থাকল দিল্লি ধর্ষণ কাণ্ডে অভিযুক্ত ৪ বন্দির। আদালত জানিয়ে দিল আগামী ২২শে জানুয়ারি …

অনেক জল্পনা পার হয়ে গেছে। রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা, সুপ্রিম কোর্টে আপিল– কোনও কিছুতেই লাভ হল না। শেষ পর্যন্ত ফাঁসির সাজাই (Nirbhaya Verdict 2020) বহাল থাকল দিল্লি ধর্ষণ কাণ্ডে অভিযুক্ত ৪ বন্দির। আদালত জানিয়ে দিল আগামী ২২শে জানুয়ারি সকাল ৭টায় ফাঁসি হবে তাদের। সেই ১৬ ডিসেম্বর ২০১২ – একটা কালো দিন, ভারতের ইতিহাসে। সে দিন রাতে দক্ষিণ দিল্লির মুনিরকায় এক তরুণীর উপর চলা নির্যাতনের বীভৎসতা স্তম্ভিত, লজ্জিত করেছিল গোটা দেশকে। সে বছর স্রেফ দিল্লিতেই ৭০৬টি ধর্ষণের অভিযোগ জমা পড়েছিল। পার হয়েছে সাতটা বছর। সাত বছর ধরে বিচারপর্ব চলার পর একটা বৃত্ত সম্পূর্ণ হল।

4 Convicts to be Hanged on 22nd January as per Nirbhaya Verdict 2020
4 Convicts to be Hanged on 22nd January as per Nirbhaya Verdict 2020

ফাঁসি হবে পবন গুপ্তা, মুকেশ সিং, বিনয় শর্মা এবং অক্ষয় ঠাকুর সিংয়ের। দ্রুততার সঙ্গে দোষীদের ফাঁসির সাজা কার্যকর করতে আদালতে আবেদন করেছিলেন ২০১২ সালে দিল্লি গণধর্ষণে মৃতার পরিবার। জানানো হয় মৃত্যু পরোয়ানা জারির আর্জি। গত ১৮ই ডিসেম্বর সেই আবেদনের শুনানি শুরু হয়। দ্রুততার সঙ্গে দোষীদের ফাঁসির সাজা কার্যকর করতে আদালতে আবেদন করেছিলেন ২০১২ সালে দিল্লি গণধর্ষণে মৃতার পরিবার। জানানো হয় মৃত্যু পরোয়ানা জারির আর্জি। এরপর ৭ই জানুয়ারি পর্যন্ত রায় স্থগিত রাখান নির্দেশ দেন বিচারক। এদিন আবার হয় ওই মামলার শুনানি।

সেই ঘটনার পর ৬ অভিযুক্তকেই গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। তার মধ্যে প্রধান অভিযুক্ত আগেই তিহার জেলে আত্মহত্যা করেছেন। আর এক অভিযুক্ত ঘটনার সময় নাবালক ছিল। ৩ বছর হোমে থাকার পর এখন সে মুক্ত। বাকি চার অভিযুক্তকেই ফাঁসির সাজা শুনিয়েছে আদালত। আগামী ৮ই ফেব্রুয়ারি দিল্লির বিধানসভা ভোট। তার আগে এই রায়কে স্বাগত জানিয়েছে সব রাজনৈতিক দলই। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর জানান, ‘‘এই রায়ে বিচারব্যবস্থার উপরে মানুষের আস্থা বাড়বে।’’ মৃত্যুও কখনো স্বস্তি দেয় দেশকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *