70th Birthday of Indian Actor Rajinikanth

Rajinikanth: অভিনেতা রজনীকান্তের জন্মদিন

কলকাতা

ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলের সিনেমায় অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি (Rajinikanth) যুক্তরাষ্ট্রের চলচ্চিত্রসহ অন্যান্য দেশের সিনেমাতেও অভিনয় করেছেন।

রজনীকান্ত একজন ভারতীয় চলচ্চিত্র অভিনেতা। ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলের সিনেমায় অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি (Rajinikanth) যুক্তরাষ্ট্রের চলচ্চিত্রসহ অন্যান্য দেশের সিনেমাতেও অভিনয় করেছেন। সালটা ১৯৭৫, অপূর্ব রাগানগাল ছবিতে কমল হাসান মুখ্য চরিত্রে। বিপরীতে এক নতুন মুখ শিবাজী রাও গায়েওয়াড, যিনি আজকের রজনীকান্ত। সীমিত স্ক্রিন টাইম থাকায় দর্শক খেয়াল না করলেও সেদিন পরিচালকদের চোখে পড়েছিলেন এই তরুণ। এই অভিনেতার জন্ম ১৯৫০ সালের ১২ই ডিসেম্বর, এক মারাঠি পরিবারে। তাঁর মায়ের নাম জিজাবাই ও বাবার নাম রামজি রাও। চলচ্চিত্রে আসার আগে সামান্য একজন বাস কনডাক্টর হিসেবে কাজ করতেন রজনী।

প্রথম দিকে তিনি নাটকে অভিনয় করতেন। তিনি ১৯৭৩ সালে মাদ্রাজ আসেন “মাদ্রাজ ফিল্ম ইনিস্টিটিউট” থেকে অভিনয়ের উপর ডিপ্লোমা পড়ার জন্য। তামিল চলচ্চিত্রে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করতে করতে রজনীকান্ত একসময় অভিনেতা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়। তারপর থেকে, ভারতীয় জনপ্রিয় সংস্কৃতিতে তিনি “ অভিনয় দেবতা” হিসেবে জনপ্রিয় হন। সিনেমায় তার আচরণ এবং সংলাপের ধরন তার জনপ্রিয়তা বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখে। “শিবাজী” সিনেমায় অভিনয়ের জন্য তিনি ₹২৬০ মিলিয়ন (US$৩।৬২ মিলিয়ন) সম্মানী নেওয়ার পর তিনি জ্যাকি চ্যানের পর এশিয়ার সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক গ্রহণকারী তারকা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হন। ১৯৭৮ সালে তামিল ছবির ‘বৈরভী’তে নায়কের ভূমিকায় তাঁর আত্মপ্রকাশ। আর এই অভিনেতা ১৯৮৩ সালের ‘আন্ধা কানুন’ ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে বলিউডে আত্মপ্রকাশ করেন।

তিনিই ভারতকে দেখাতে পারেন সবথেকে বেশি বাজেটের ছবি (৫০০ কোটি) তৈরি করে কীভাবে তার থেকে বেশি ব্যবসা দিতে হয়। আজকের হিসেব অনুযায়ী রজনীকান্তের ছবির আয় ৬০০ কোটি টাকা। ১৯৮১ সালে রজনীকান্ত লতা রাঙ্গাচড়িকে বিয়ে করেন। লতা এথিরাজ মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী ছিলেন, যিনি তাদের কলেজ ম্যাগাজিনের জন্য রজনীকান্তের সাক্ষাৎকার নেওয়ার জন্যে গিয়েছিলেন। তাদের দুই মেয়ে “ঐশ্বর্য্য রজনীকান্ত” এবং “সৌন্দর্য্য রজনীকান্ত”। ২০০০ সালে ভারত সরকার কর্তৃক তাকে ভারতের তৃতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মান পদ্মভূষণ উপাধী প্রদান করে। “ফোর্বস ইন্ডিয়া” তাকে ২০১০ সালের সবচেয়ে প্রভাবশালী ব্যক্তি হিসেবে প্রতিবেদনে উল্লেখ করে। রজনীকান্ত চলচ্চিত্র জগতে এতটাই জনপ্রিয় যে, তাঁকে বলা হয় ‘গড অব ইন্ডিয়ান সিনেমা’!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *