Bethune School Students Sit on Dharna for Passing the Exam

বেথুন স্কুলে পাশ করিয়ে দেওয়ার জন্য পড়ুয়াদের ধর্না ।

কলকাতা

Bethune Collegiate School Students Sit on Dharna for Passing the Exam

বেথুন স্কুলের একাদশ শ্রেণি থেকে দ্বাদশ শ্রেণিতে উঠতে ১১৯ জন পড়ুয়ার মধ্যে ফেল করেছে মোট ১৮ জন।

খুব অচেনা হয়ে উঠছে কল্লোলিনী কলকাতার শিক্ষাক্ষেত্রের আবহাওয়া|পরীক্ষা আর ফলাফলের মধ্যে শুরু হচ্ছে অনৈতিক দাবির ঘেরাও বা ধর্ণা|পাশটায় একমাত্র লক্ষ্য| আর তারজন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে কত সহজেই অপমানিত করে তোলা যায়! এবার পরীক্ষায় পাশ করিয়ে দেওয়ার দাবি তুলে গতকাল সোমবার, বেথুন কলেজিয়েট স্কুলে রীতিমতো ধর্নায় বসল একদল ছাত্রী। স্কুল কর্তৃপক্ষ সেই দাবি না মানায় আজ, মঙ্গলবার উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদে যাবেন বলে জানিয়েছেন বীরাঙ্গনাদের অভিভাবকেরা। খাতায় উত্তর যাই থাক না কেন,পাশতান্ত্রিক অধিকার তারা হাতছাড়া করতে চাইছে না|

জানা যাচ্ছে এই বেথুন স্কুলের একাদশ শ্রেণি থেকে দ্বাদশ শ্রেণিতে উঠতে ১১৯ জন পড়ুয়ার মধ্যে ফেল করেছে মোট ১৮ জন। ওই বিজ্ঞান এবং কলা বিভাগের অকৃতকার্য হওয়া ওই সব পড়ুয়া এবং তাদের অভিভাবকদের নিয়ে এ দিন স্কুলে গিয়ে পাশ করিয়ে দেওয়ার দাবি করেন। রাম রাজত্ব বা মঘের মুলুকের অধিবাসীদের সাথে মেলানো যায় এদেরকে| অভিভাবকদের দাবি, উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের নিয়মের বাইরে গিয়ে স্কুল কর্তৃপক্ষ এই পড়ুয়াদের ফেল করিয়েছেন। এই পডুয়াদের মধ্যে অনেকে থিয়োরিটিক্যাল এবং প্রোজেক্ট বা প্র্যাকটিক্যালে আলাদা ভাবে পাশ না করলেও দু’টি মিলিয়ে পাশ করেছে। সব মিলিয়ে এদের পাশ নম্বর আছে।

জানা যাচ্ছে, সংসদের নিয়ম অনুযায়ী, দ্বাদশ শ্রেণিতে আলাদা ভাবে থিয়োরি এবং প্র্যাকটিক্যালে পাশ করতে হয়। আবার অভিভাবকদের দাবি, একাদশ শ্রেণির ক্ষেত্রে এই নিয়ম খাটে না। কিন্তু তাও তাদের ফেল করানো হয়েছে। স্কুল সূত্রে জানা যাচ্ছে, এ দিন পড়ুয়াদের ডেকে তাদের খাতা দেখানো হয়। কিন্তু তাদের দাবি তারা এই স্কুলে আর পড়বে না। অন্য স্কুলে দ্বাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হবে।

আর তার জন্য স্কুল কর্তৃপক্ষকে লিখে দিতে হবে, এই সব কৃতি পড়ুয়ারা একাদশ শ্রেণিতে পাশ করেছে। যদিও স্কুল কর্তৃপক্ষ এই দাবি মানতে রাজি হননি। বেথুন স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা বলেন,সংসদ তাদের সিদ্ধান্ত বদল না করতে বলেছে। পড়ুয়া ও অভিভাবকেরা নাছোড়। তাই অভিভাবকদের সংসদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।হাঁসফাঁস গরমে, পাশের জন্য এই ধর্নায় কোনো নেতারা যাবেন না| তাঁরা এখন ………

Bethune Collegiate School

Bethune Collegiate School

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *