Biscuit Maker Parle May Cut Upto 10000 Employees

Biscuit Maker Parle: ১০ হাজার কর্মী ছাঁটাই

কলকাতা

পার্লে প্রোডাক্টস প্রাইভেট লিমিটেডের (Biscuit Maker Parle) এক আধিকারিক জানিয়েছেন, দেশের বর্তমান আর্থিক অবস্থা বেশ মন্দা।

গোটা ভারতবাসি এই বিস্কুটের সাথে অনেকদিন ধরেই ভাব জমিয়েছে। আট থেকে আশি, হাসি মুখে কামড় দিতে অভ্যস্ত পার্লের মুড়মুড়ে বিস্কুটে। অথচ সেই বিস্কুটের কারখানাতেই বিয়োগের করুন সুর অনুরণিত হচ্ছে। ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় বিস্কুট নির্মাতা পার্লে প্রোডাক্টস প্রাইভেট লিমিটেডের (Biscuit Maker Parle) এক আধিকারিক জানিয়েছেন, দেশের বর্তমান আর্থিক অবস্থা বেশ মন্দা। আর গ্রামাঞ্চলে কমতে থাকা চাহিদার জন্য ১০ হাজার পর্যন্ত কর্মী ছাঁটাই করার কথা ভাবছে এই নামী সংস্থা। একসাথে অনেকগুলি মানুষ কাজ হারাতে বসেছেন। চলতি মাসের গোড়ার দিকে পার্লের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী ব্রিটানিয়া ইন্ডাস্ট্রিজের ম্যানেজিং ডিরেক্টর বরুণ বেরী কিছু বিশেষজ্ঞের সঙ্গে কথোপকথন চলাকালীন জানান, গ্রাহকরা এখন পাঁচ টাকা দামের পণ্য কেনার আগেও “দুবার ভাবছেন”। 

বিগত ৯০ বছর ধরে ভারতে একের পর এক জনপ্রিয় বিস্কুট এনেছে এই সংস্থা। খাতায় কলমে ভারত এখনও এশিয়ার তৃতীয় বৃহত্তম সম্ভাবনার অর্থনীতির দেশ। অথচ দেশের বাজারের অবস্থা ক্রমশ নিম্নগামী। তার মন্দ প্রভাব পড়েছে গাড়ি, বাড়ি, সোনা থেকে বস্ত্রশিল্পের ওপর। ফলে পরিস্থিতি বুঝে উৎপাদন কমিয়ে দিচ্ছে দেশের নামী একের পর এক সংস্থা। তবে ভরসার জায়গা একটাই – সরকারি হস্তক্ষেপের। যাতে আর্থিক টনিকের সাহায্যে আবার বৃদ্ধির পথে ফিরতে পারে দেশের অর্থনীতি – লাভের মুখ দেখতে পারে কোম্পানিগুলো।

জানা যাচ্ছে, বর্তমানে এই বিস্কুট সংস্থায় স্থায়ী-অস্থায়ী মিলিয়ে প্রায় ১ লক্ষ কর্মী কাজ করেন। এনারা ছড়িয়ে রয়েছেন সংস্থার মালিকানাধীন ১০ টি কারখানা এবং কন্ট্র্যাক্টের ভিত্তিতে নিয়োজিত আরও ১২৫ টি কারখানায়।পার্লের ক্যাটেগরি হেড মায়াঙ্ক শাহ জানিয়েছেন, বিগত কয়েক মাস ধরে তাদের বিস্কুটের চাহিদা অস্বাভাবিক হারে কমছে। ফলে লাভের অঙ্কও কমেছে অনেকটাই। যা ব্যবসাকে থামাতে বাধ্য করেছে। তিনি আরও জানান, ২০১৭ সালে জিএসটি কার্যকর হওয়ার পর থেকে ক্রমাগত লোকশানে চলছে তাদের নামী সংস্থা। এই লোকশানের জন্যই অন্তত ৮ থেকে ১০ হাজার কর্মীকে ছাঁটাই করা হতে পারে। আসলে ছাঁটাইয়ের চাপ থাকবে মূলত সংস্থার অস্থায়ী কর্মীদের উপরে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *