CAB Protest in West Bengal

CAB Protest: জ্বলছে বাস, থেমেছে ট্রেন, রাস্তা অবরোধ

কলকাতা

নাগরিকত্ব আইনের (CAB Protest) প্রতিবাদে ব্যাপক অশান্তি গোটা রাজ্যজুড়ে। উত্তর-পূর্ব ভারত থেকে ছড়িয়ে পড়ছে অন্য রাজ্যগুলিতে।

নাগরিকত্ব আইনের (CAB Protest) প্রতিবাদে ব্যাপক অশান্তি গোটা রাজ্যজুড়ে। উত্তর-পূর্ব ভারত থেকে ছড়িয়ে পড়ছে অন্য রাজ্যগুলিতে। বিভিন্ন প্রান্তে দফায় দফায় শুরু হয় বিক্ষোভ, রেল-সড়ক অবরোধ। কোথাও আবার বাস-গাড়িতে ভাঙচুর চালোনোর মতো ঘটনা ঘটছে। টায়ার জ্বালিয়ে এবং কুশপুতুল পুড়িয়েও প্রতিবাদ চলছে। বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে কখনও লাঠিচার্জ, কখনও বা টিয়ার গ্যাসের শেল ফাটাতে হয় পুলিশকে। হাওড়া-কলকাতা সংযোগকারী অন্যতম সড়ক কোনা এক্সপ্রেসওয়েতে সম্পূর্ণভাবে স্তব্ধ যান চলাচল। চূড়ান্ত ভোগান্তির শিকার যাত্রীরা। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে বিক্ষোভে শামিল হয়েছিলেন বহু মানুষ। রাজ্যবাসীকে শান্ত থাকতে বলেছিলেন রাজ্যপাল ও মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু প্রতিবাদ আরো জটিল হয়ে উঠেছে।

বাতিল হাওড়া দিঘা এসি এক্সপ্রেস। বাতিল হাওড়া-তিরুপতি হামসফর। হাওড়া-পুনে দুরন্ত এক্সপ্রেস। ভাঙচুর, অবরোধের জেরে ট্রেন বাতিল। গতকাল থেকেই একাধিক ট্রেন বাতিল হয়েছে। বাতিল করা হয়েছে হাওড়া-খড়্গপুর শাখার সব লোকাল ট্রেন। হাসনাবাদ-শিয়ালদহ শাখায় এখনও অবরোধ চলছে। তার জেরেই আটকে বহু ট্রেন। পাশাপাশি শিয়ালদহ হাওড়া থেকেও বহু ট্রেন বাতিল করা হয়েছে। যাত্রাপথে থামিয়ে দেওয়া হয়েছে বহু ট্রেন। বহু ট্রেন আটকে থামিয়ে দেওয়া হয়েছে খড়্গপুরে। রাস্তায় নেমে চরম সমস্যায় আছেন অগণিত মানুষ।

সকাল থেকেই CAB-এর প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখা যায় কোনা এক্সপ্রেসওয়েতে। সকাল থেকে জাতীয় সড়ক কার্যত অচল করে দিয়ে চলে অবরোধ। কোনা এক্সপ্রেসওয়েতে বিক্ষোভকারীদের হটাতে গেলে, ইটের আঘাতে জখম হন হাওড়া সিটি পুলিশের ডিসি (সাউথ)। পরে অগণিত বিক্ষোভকারীদের হটাতে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। রাস্তার উপর দাউ দাউ করে জ্বলতে শুরু করে আগুন। ভাঙচুর করে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয় একাধিক বাসে। প্রথম দিকে ধীরে গাড়ি চলাচল করলেও, বেলা বাড়তেই কোনা এক্সপ্রেসওয়েতে সম্পূর্ণ রূপে বন্ধ করে দেওয়া হয় যান চলাচল। অশান্ত হয়ে ওঠে উলুবেড়িয়া, মুর্শিদাবাদের বেলডাঙা-সহ রাজ্যের বেশ কিছু অঞ্চল। বিক্ষোভের আঁচ পড়ে কলকাতায়। যান চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় কার্যত স্তব্ধ জনজীবন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *