Central Letter to State Govt For Breaking Lockdown Rule in Specific Places

Central Letter to State: লকডাউন ভাঙা নিয়ে চিঠি

কলকাতা

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যসচিব ও রাজ্য পুলিশের ডিরেক্টর জেনারেলকে কড়া চিঠি (Central Letter to State) পাঠাল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। নারকেলডাঙা, তপসিয়া …

সদ্য ২১দিনের লকডাউনের সীমা বাড়ানো হয়েছে। যে ভাবেই হোক ভাইরাসকে ঠেকাতে হবে। এরই মাঝে দিল্লি থেকে অন্য বার্তা এলো। আজ শনিবার পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যসচিব ও রাজ্য পুলিশের ডিরেক্টর জেনারেলকে কড়া চিঠি (Central Letter to State) পাঠাল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। নারকেলডাঙা, তপসিয়া, মেটিয়াবুরুজ-সহ কলকাতার বেশ কয়েকটি জায়গায় লকডাউন বিধি মানা হচ্ছে না বলে ওই চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে। আসলে লকডাউনের এহেন শিথিলতা নিয়ে রাজ্যের ভূমিকায় অসন্তুষ্ট স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। রাজ্যের পুলিশের ভূমিকা নিয়েও উল্লেখ করেছে মন্ত্রক। তাতে বলা হয়েছে, ধর্মীয় সমাবেশকে কড়া ভাবে আটকাচ্ছে না পুলিশ।

রাজ্যে চিহ্নিত প্রায় ২০টি হটস্পট – আরও জানতে ক্লিক করুন …

সাংবাদিক বৈঠকে এ ব্যাপারে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “আপানারা যতটা বাড়িয়ে বলছেন, চিঠিতে ওরকম কিছু নেই। তবে হ্যাঁ কয়েকটা জায়গার উপর নজর রাখতে বলেছে। আর আপনারা তো জানেনই যে কেন্দ্র কোথায় কোথায় বেশি নজর রাখার কথা বলতে পারে!” তিনি মনে করছেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের ওই চিঠি সাম্প্রদায়িক ইঙ্গিতপূর্ণ। বিশেষ সম্প্রদায়ের বাস যোগ্য স্থানের দিকেই এই ইঙ্গিত মিলেছে। নারকেলডাঙা, রাজাবাজার, তপসিয়া, মেটিয়াবুরুজ, গার্ডেনরিচ, একবালপুর, মানিকতলা অঞ্চলগুলিতে লকডাউন মানা হচ্ছে না বলে চিঠিতে উল্লেখ করেছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। তবে বিশেষ করে, নারকেলডাঙাতে বেশি পজিটিভ কেস পাওয়া গিয়েছে।

লকডাউন ৩০শে এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানোর সিদ্ধান্ত – আরও জানতে ক্লিক করুন …

আজ প্রধানমন্ত্র্রীর সঙ্গে ভিডিয়ো কনফারেন্সে বৈঠকের পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “ওই জায়গাগুলোর কথা কেন এসেছে তা বোঝা যাচ্ছে। মনে রাখতে হবে, আমরা কোনও সাম্প্রদায়িক ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়ছি না। আমরা একটা রোগের বিরুদ্ধে লড়ছি।’’ ফুল বাজার নিয়ে আজ সরব হয়েছেন মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। এই কঠিন সময়ে দাঁড়িয়ে তার বক্তব্য একেবারেই ভুল নয়। অনেক জায়গাতেই সোশাল ডিস্টেন্সিংয়ের শর্ত মানা হচ্ছে না। এই ধরনের ক্ষেত্রে কড়া পদক্ষেপ করতে অনুরোধ করা হচ্ছে। এ ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রককে দ্রুত একটি রিপোর্টও পাঠাতে বলা হচ্ছে।

উত্তপ্ত বাসন্তী – বোমা আর সংঘর্ষে জখম ৩ – আরও জানতে ক্লিক করুন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *