Clash Between Police and Prisoners at Jalpaiguri Jail due to Coronavirus Scare

Jalpaiguri Jail: ইট বৃষ্টি জলপাইগুড়ি কারাগারে – সংঘর্ষ

কলকাতা

কলকাতার দমদম ও প্রেসিডেন্সির পর মুক্তির দাবিতে বন্দি-পুলিস সংঘর্ষ উত্তাল জলপাইগুড়ি সংশোধনাগার (Jalpaiguri Jail)। সুপ্রীম কোর্টের নির্দেশিকা …

সংশোধনাগারে আবার বেপরোয়া ঝামেলা। বন্দিদের মুক্তির দাবিতেই শুরু হয় এই সংঘর্ষ।
মারণ ভাইরাসকে সামনে রেখে ঘরে ফেরার চেষ্টা। কলকাতার দমদম ও প্রেসিডেন্সির পর মুক্তির দাবিতে বন্দি-পুলিস সংঘর্ষ, উত্তাল জলপাইগুড়ি সংশোধনাগার (Jalpaiguri Jail)। সুপ্রীম কোর্টের নির্দেশিকা কার্যকরী করার দাবি জেলের ভিতর। জেলবন্দি আসামীদের মুক্তির দাবিতে জলপাইগুড়ি কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে পুলিস ও বন্দিদের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। আজ শনিবার, দুপুরে জেল পুলিসের আবাসন লক্ষ্য করে শুরু হয় ইটবৃষ্টি।

Clash Between Police and Prisoners at Jalpaiguri Jail due to Coronavirus Scare
Clash Between Police and Prisoners at Jalpaiguri Jail due to Coronavirus Scare

লকডাউনের মধ্যে এই অকাম্য পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিস সুপার অভিশেখ মোদী-সহ বিশাল বাহিনী ও র‍্যাফ। এইমুহূর্তে বিশাল পুলিশবাহিনী গোটা সংশোধনাগার ঘিরে রেখেছে পুলিশ। জানা যাচ্ছে, বেশ কয়েকজন বন্দি জখম হয়েছে। আগুন ধরাতে পারেনি এখানে। তবে সংশোধনাগার কর্তৃপক্ষের তরফে এ বিষয়ে এখনও পর্যন্ত নিশ্চিত কোনও তথ্য জানানো হয়নি। কলকাতার সাথে যোগাযোগ রাকা হয়েছে। যেভাবেই হোক পরিস্থিতি সামলানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।

হাওড়াতে স্বসস্ত্র পুলিশের ছয়লাপ – আরও জানতে ক্লিক করুন …

এই জলপাইগুড়ি কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে মোট ৮টি ওয়ার্ড রয়েছে। আর এখানে আবাসিকের সংখ্যা ১২০০-এর বেশি। লকডাউন চলাকালীন ৬০-৭০ জন বিচারাধীন বন্দি আজ শনিবার সকাল থেকে জেল পুলিসের আবাসন লক্ষ্য করে ইট পাথর ছুড়তে থাকে। জলপাইগুড়ি কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে চিফ ডিসিপ্লিন অফিসার অসীম আচার্যা প্রথমে বিষয়টাকে দেখেন। পরে ভেতরের মেইন গেট আটকে দিতেই বেলা ১২ টা নাগাদ আবার শুরু হয় পাথর বৃষ্টি। কিন্তু কীভাবে বন্দিরা এই হামলা করার জন্য ইট, পাথর পেল, তা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যায়। জেলের ভিতরে ঢোকার মেইন গেট কয়েদীরা আটকে রাখায় পুলিশ ঢুকতে পারছে না।

মমতার ‘স্নেহের পরশ’ প্রকল্প – আরও জানতে ক্লিক করুন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *