Containment zones in Kolkata increased to 338

কলকাতায় বাড়ল ১২টি কনটেনমেন্ট জোন

কলকাতা পশ্চিমবঙ্গ

শহরের ৩২৬ টি থেকে এই এলাকার (Containment zones in Kolkata) সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৩৩৮টি। দক্ষিণ শহরতলির বহু এলাকা নতুন তালিকায় যুক্ত হয়েছে।

লকডাউনের তৃতীয় পর্যায় শেষের দিকে। আজ আবার প্রধানমন্ত্রী দেশের সকল মুখ্যমন্ত্রীদের সাথে বৈঠকে বসেছেন। আগামীকাল থেকেই ট্রেন চালু হচ্ছে। কিন্তু কলকাতার উদ্বেগ বাড়তেই আছে। করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে এদিকে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে কন্টেনমেন্ট জোনের সংখ্যা। শহরের ৩২৬ টি থেকে এই এলাকার (Containment zones in Kolkata) সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৩৩৮টি। দক্ষিণ শহরতলির বহু এলাকা নতুন তালিকায় যুক্ত হয়েছে। একই সাথে সিল করা হয়েছে অনেক এলাকা। ১০ই মে পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় শহরে নতুন আক্রান্ত ৩৭ জন ও মৃত ১০জন । এরপরই কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা বাড়ানো হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে মরিয়া প্রশাসন ও স্বাস্থ্য দপ্তর ।

কলকাতায় ধর্মের উর্দ্ধে মানবিকতা, মসজিদে কোয়ারান্টাইন সেন্টার – আরও জানতে ক্লিক করুন …

রাজ্যে করোনা পজিটিভ:

পৃথিবীতে এখনও পর্যন্ত ভাইরাসে মারা গেছে ২,৮০,৪৩২ জন। আর আক্রান্ত ৪১ লক্ষের বেশি। আমেরিকায় মৃতের সংখ্যা ৭৯ হাজার ছুঁতে চলেছে। আমাদের দেশে পজিটিভ ৬৭ হাজার ১৫২ জন, মৃত্যু হয়েছে ২২০৬ জনের। রাজ্যে করোনা পজিটিভ ১৯৩৯ জন, মৃতের সংখ্যা ১১৩। রবিবার সন্ধ্যায় স্বাস্থ্য ভবনের দেওয়া পরিসংখ্যান বলছে, শুধু কলকাতায় এখনও পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৯৪৮। আর মৃত্যু হয়েছে ১২৬ জনের। লকডাউনেও বিশেষ পরিস্থিতি বদলাচ্ছে না।

আটটি বিশেষ ট্রেনে বাংলায় ফিরছে পরিযায়ী শ্রমিকআরও জানতে ক্লিক করুন …

কলকাতার কনটেনমেন্ট জোনগুলি:

কলকাতার কনটেনমেন্ট জোনগুলির মধ্যে বেশি রয়েছে উত্তর ও মধ্য কলকাতায়। যাদবপুরের বিভিন্ন এলাকাকে কনটেনমেন্ট জোন হিসাবে ঘোষণা করা হয়েছে। একই ভাবে এই তালিকায় যোগ হয়েছে দক্ষিণ শহরতলির একাধিক এলাকা। তবে রাজ্যের মধ্যে কলকাতাকে বেশি আতঙ্ক তৈরী হচ্ছে। বহু এলাকায় লকডাউন সঠিকভাবে মানা হচ্ছে না, তাই ক্রমাগত সংক্রমণ বাড়ছে।সবথেকে ভয়ের ১ থেকে ৯ ও ১৫ নম্বর বোরো। এরমধ্যে বড়বাজার সংলগ্ন চার নম্বর বোরো ও গার্ডেনরিচ সংলগ্ন ১৫ নম্বর বোরোতে আক্রান্তের সংখ্যা খুব বাড়ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *