ED Issues Lookout Notice Against Subhra Kundu of Rose Valley

Subhra Kundu: শুভ্রা কুণ্ডুর বিরুদ্ধে লুকআউট নোটিস

কলকাতা

গোলাপ বাগান থেকে তিনি অদৃশ্য। তিনি রোজভ্যালি কাণ্ডের অন্যতম কারিগর শুভ্রা কুণ্ডু (Subhra Kundu) । কাজের স্বার্থে পরপর তিনবার নোটিস পাঠানো হয়।

গোলাপ বাগান থেকে তিনি অদৃশ্য। তিনি রোজভ্যালি কাণ্ডের অন্যতম কারিগর শুভ্রা কুণ্ডু (Subhra Kundu) । কাজের স্বার্থে পরপর তিনবার নোটিস পাঠানো হয়। কিন্তু কোনও উত্তর পাওয়া যায়নি। বাধ্য হয়ে ফ্ল্যাটে হানা দিয়েছিল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা ইডি। তাতেও তার দেখা মেলেনি। আর সেইজনই রোজভ্যালির কর্ণধার গৌতম কুণ্ডুর স্ত্রী শুভ্রা কুণ্ডুর বিরুদ্ধে লুকআউট নোটিস জারি করল ইডি। এরফলে কোনও এয়ারপোর্ট বা সিপোর্ট ব্যবহার করতে পারবেন না শুভ্রা। পাশাপাশি দেশ ছেড়ে পালিয়েও যেতে পারবেন না তিনি।

ইডি আশঙ্কা করছে নীরব মোদি, বিজয় মালিয়ার মতো তদন্ত এড়াতে বিদেশ পালিয়ে যেতে পারেন শুভ্রা। তাই সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে দেশের সমস্ত বিমানবন্দরে অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। স্বামীর সংস্থাটির আর্থিক লেনদেন নিয়ে শুভ্রাকে একাধিকবার জেরা করেন তদন্তকারীরা। তবে সব থেকে বেশি জল্পনা ছড়ায় ২০১৭ সালে। রোজভ্যালি কাণ্ডে ইডি-র তৎকালীন তদন্তকারি অফিসার মনোজ কুমারের সঙ্গে একাধিকবার দিল্লির হোটেলে ও বিমানবন্দরে দেখা যায় শুভ্রা কুণ্ডুকে। ইডি-র তরফে জারি করা এই নোটিসে বলা হয়েছে, দেশের যে কোনও বিমানবন্দরে গেলেই বাজেয়াপ্ত করা হবে শুভ্রা কুণ্ডুর পাসপোর্ট। এই ব্যাপারে ব্যুরো অফ ইমিগ্রেশনকে চিঠি পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা।

ইডি সূত্রে জানানো হয়েছে, শেষবার শুভ্রা কুণ্ডুর সঙ্গে কথা বলে তাঁকে সমস্ত তথ্যপ্রমাণ পেশ করার ইঙ্গিত দেওয়া হয় আর তারপর হারিয়ে যান শুভ্রা। গত ২১শে নভেম্বর ইডি আধিকারিকদের একটি দল গিয়েছিল দক্ষিণ কলকাতার সাউথ সিটি আবাসনে। বাড়িতে থাকা পরিচারিকা জানান, শুভ্রাদেবী সপ্তাহখানেক আগে শহরের বাইরে গিয়েছেন। তবে কোথায় গিয়েছেন তা বলতে পারেননি তিনি। গত জুন মাসে তদন্তের স্বার্থে ইডি আধিকারিকরা বারাসত থেকে বেহালা পর্যন্ত রোজভ্যালির গয়নার বিপণির ১৬টি শোরুমে পৌঁছায়। ইডি সূত্রে জানা যাচ্ছে, গয়নার বিপণি সংক্রান্ত যে হিসেব পাওয়া গিয়েছে তাতে অন্তত দেড়শ কোটি টাকার বেশি গরমিল। তাই কি এই বেপাত্তা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *