Finace Minister Amit Mitra Clears That Howrah Investment Can Cross Rs 12k Crore and Brings Over 3 Lakh New Job

Howrah Investment: হাওড়াতে ১২ হাজার কোটি টাকার লগ্নি

কলকাতা

হাওড়ায় ক্ষুদ্র, ছোট ও মাঝারি শিল্পে ১২ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ (Howrah Investment) আসছে। সেখানে প্রায় ৩ লাখ কর্মসংস্থান হবে। ছোট-মাঝারি …

সামনেই ভোট পুজো। জনগণকে কাছে ও পাশে থাকার বার্তা দিতে প্রস্তুত সকল রাজনৈতিকদল। কিন্তু মসনদে থাকা দলের দায় ও চাপ একটু বেশি। আর সেই জন্যই অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র ঝাঁপিয়েছেন লগ্নি টানতে। হাওড়ায় ক্ষুদ্র, ছোট ও মাঝারি শিল্পে ১২ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ (Howrah Investment) আসছে। সেখানে প্রায় ৩ লাখ কর্মসংস্থান হবে। ছোট-মাঝারি শিল্পের প্রসারের লক্ষ্যে প্রতিটি জেলায় পর্যায়ক্রমে ‘সিনার্জি’ শীর্ষক সম্মেলন করে রাজ্য। বৃহস্পতিবার ছিল ‘সিনার্জি এমএসএমই হাওড়া’। সেখানেই বহু সংস্থা লগ্নির কথা জানান। অমিতবাবুর মতে, সম্প্রসারণের সম্ভাবনার নিরিখে ভবিষ্যতে ওই প্রস্তাব আরও বাড়বে।

Synergy MSME Howrah
Synergy MSME Howrah

হাওড়ার জগদীশপুরে হোসিয়ারি পার্ক গড়ে তোলার জন্য রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে ১৪.‌৯৬ একর জমি প্রদান করা হয়। শিল্পমন্ত্রী অমিত মিত্র জানান, জগদীশপুরের ওই এলাকায় ১২০ একর জমিতে ভারতের সর্ববৃহৎ হোসিয়ারি পার্ক গড়ে উঠছে। পরিকাঠামোর কাজ প্রায় শেষ। ১৭০টি ইউনিট থাকবে এখানে। ১ লাখ ৫ হাজার মানুষের কর্মসংস্থান হবে। ৫ কোটি টাকা বিনিয়োগ হবে। আগামী ২০২১ সালের মধ্যে ওই কাজ শেষ করার লক্ষ্য রাখা হয়েছে। রাস্তা, বিদ্যুতের সাব–স্টেশন করে দেওয়া হয়েছে। এর পাশাপাশি এদিন বিশ্ব বাংলা মার্কেট কর্পোরেশনের জিনিসপত্র অনলাইনে বিক্রি করার জন্য একটি আন্তর্জাতিক সংস্থার সঙ্গে চুক্তি হয়। তাদের সঙ্গে লজিস্টিক হাব গড়ে তোলা হচ্ছে।

ঘোজাডাঙা স্থলবন্দরের দায়িত্ব নিজেদের হাতে নিল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক – আরও জানতে ক্লিক করুন …

এই রাজ্যে টিসিএসে ৪৫ হাজার মানুষের কর্মসংস্থান হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, টাটার ২২টি ইউনিট এই রাজ্যে চলছে। অলঙ্কার কারখানার জন্য জেম অ্যান্ড জুয়েলারি পার্কে টাইটানকে জায়গা দেয় রাজ্য শিল্পোন্নয়ন নিগম। নির্মাণ সংস্থা ইএসআর উলুবেড়িয়ার গড়ছে লজিস্টিকিস হাব। বিভিন্ন রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের প্রতিনিধিদেরও উদ্যোগপতিদের ঠিকঠাক ঋণ দেওয়ার প্রস্তাব দেন অর্থ ও শিল্পমন্ত্রী অমিত মিত্র। এদিন এরকমই জেলার ৮০০টি ক্ষুদ্র, ছোট ও মাঝারি শিল্পের উদ্যোগপতিদের হাতে বিভিন্ন ব্যাঙ্কের তরফে মোট ১২০ কোটি টাকা ঋণ দেওয়া হয়। তাদের হাতে ওই চেক তুলে দেন অর্থমন্ত্রী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *