HC on Mukul Roy in Bara Bazar Snatching Case and Labpur Murder Case

HC on Mukul Roy: মুকুল রায়কে কণ্ঠস্বর পরীক্ষার নির্দেশ

কলকাতা

লাভপুর হত্যা মামলায় বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের আগাম জামিনের আবেদন খারিজ করে দিল কলকাতা হাইকোর্ট (HC on Mukul Roy)।

বেশ সমস্যার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন মুকুল রায়। লাভপুর হত্যা ও বড়বাজার ছিনতাই মামলায় তিনি অনেকটাই দিশাহারা। আইনের চাপ বাড়িয়ে চলেছে তৃণমূল। গতকাল লাভপুর হত্যা মামলায় বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের আগাম জামিনের আবেদন খারিজ করে দিল কলকাতা হাইকোর্ট (HC on Mukul Roy)। ২০১০ সালে লাভপুরে তিন সিপিএম সমর্থক ভাইকে খুনের ঘটনায় কিছুদিন আগে অতিরিক্ত চার্জশিটে মুকুল রায়ের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। আবার অন্যদিকে আজ বৃহস্পতিবার, নিম্ন আদালতের নির্দেশের উপর কোনোরকম স্থগিতাদেশ না দিয়ে কলকাতা হাইকোর্ট জানায়, বড়বাজার ছিনতাই মামলায় কন্ঠস্বর পরীক্ষা করা হবে মুকুল রায়ের।

দুই দিকের আইনি সমস্যা এসেছে মুকুল রায়ের সামনে। তৃণমূলের প্রাক্তন নেতার বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। সেই প্রেক্ষিতেই আগাম জামিনের আর্জি নিয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন মুকুল। কিন্তু বিজেপি নেতার ‘আবেদন ত্রুটিপূর্ণ’ হওয়ায় ওই আর্জি মঙ্গলবার কলকাতা হাইকোর্ট খারিজ করেছে। লোকসভা ভোটের পর দলবদলের স্রোতে মুকুল রায়ের হাত ধরেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন লাভপুরের বিধায়ক মণিরুল ইসলাম। কিন্তু ‘খুন-সন্ত্রাসে’ অভিযুক্ত মণিরুলকে নেওয়া নিয়ে বিজেপির মধ্যেই ‘অসন্তোষ’ তৈরি হয়।

২০১৮ সালের জুলাই মাসে বড়বাজারের কল্যাণ রায় বর্মণের কাছ থেকে ৯০ লাখ টাকা উদ্ধার হয়। পুলিসের দাবি, তার আগেই ওই ব্যক্তি মুকুল রায়ের সঙ্গে কথা বলছিলেন। ৪ ফ্রেব্রুয়ারি কলকাতা পুলিস মুকুল রায়ের কন্ঠস্বর পরীক্ষার আর্জি জানায়। নিম্ন আদালত সেই নির্দেশ দিলে তার বিরুদ্ধে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন মুকুলবাবু। আজ ছিল সেই মামলার শুনানি। বিচারপতি রাজশেখর মান্থা বেশ কিছু আইনি সমস্যার সমাধানের জন্য মামলাটি প্রধান বিচারপতির কাছে পাঠান। আর আগামী ১০ই জানুয়ারি মুকুল রায়ের কণ্ঠস্বর পরীক্ষার নির্দেশ দেন। আইনের পথে মুকুলবাবুকে যেতেই হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *