Jadavpur Conflict is on When Bengal Governor Enters University

Jadavpur Conflict: শেষ পর্যন্ত সম্মতি রাজ্যপালের

কলকাতা

যাদবপুর গেলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। আজ শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয়ের (Jadavpur Conflict) ক্যাম্পাসে কোর্ট মিটিংয়ে অংশ নিতে গিয়ে আসে নতুন বিতর্ক।

বিতর্কিত বাবুলকাণ্ডের পর আবার একবার যাদবপুর গেলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। আজ শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয়ের (Jadavpur Conflict) ক্যাম্পাসে কোর্ট মিটিংয়ে অংশ নিতে গিয়ে আসে নতুন বিতর্ক। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তনে ডি–লিট এবং ডিএসসিদের নিয়েই তৈরি হয় জটিলতা। তবে জানা যাচ্ছে, প্যানেলের সিদ্ধান্তের সঙ্গে প্রথমে ‘‌সহমত’‌ ছিলেন না মাননীয় আচার্য। কর্তৃপক্ষের তৈরি তালিকা নিয়ে নিজের মত জানাতে চাননি রাজ্যপাল। নামগুলি নিয়ে আলোচনার কথাও বলেন। অধ্যাপকরা দাবি করেন, রাজ্যপাল যাতে বৈঠকেই নিজের মত জানান। পরে কর্তৃপক্ষ মনোনীত ৪টি নামেই সম্মতি জানান আচার্য।

আজ রাজ্যপালের আগমন উপলক্ষে আজ যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে সাদা পোশাকে পুলিস ঘুরতে দেখা যায়। যদিও বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানায়, তারা পুলিশ ডাকছে না। কিন্তু পুলিস নিজে থেকে কিছু করতে চাইলে করতে পারে। কেন্দ্রীয় বাহিনীর নিরাপত্তা পাওয়ার পর এই প্রথম যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় এলেন রাজ্যপাল। তার ২ নম্বর গেট দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢোকে রাজ্যপালের কনভয়। আজ অরবিন্দ ভবনে তাঁকে অভ্যর্থনা জানান উপাচার্য সুরঞ্জন দাস।শঙ্খ ঘোষ, সংঘমিত্রা চৌধুরি, সি ভি রমন এবং সলমন হায়দার-সহ চারজনের নাম প্রস্তাব করেছিল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। তবে সলমন হায়দারের ক্ষেত্রে আপত্তি জানান রাজ্যপাল। বাদানুবাদের পর অবশ্য সহমত পোষণ করেন জগদীপ ধনকড়।

রাজ্য–রাজ্যপালের মধ্যে সংঘাতের সূত্রপাত এই যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়কে কেন্দ্র করেই। এবিভিপি আয়োজিত নবীনবরণ উত্‍সবে যোগ দিতে এসে পড়ুয়াদের হাতে ঘেরাও হন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। তাঁর চুল টেনে, জামা ছিঁড়ে, তাঁকে হেনস্থার অভিযোগ ওঠে পড়ুয়াদের বিরুদ্ধে। ধাক্কাধাক্কিতে পড়েও যান কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। পরবর্তীতে রাজ্যপাল নিজে এসে পড়ুুয়াদের ঘেরাটোপ থেকে বাবুলকে উদ্ধার করেন। পরে বাবুল সুপ্রিয়কে নিয়ে ক্যাম্পাস থেকে বেরনোর সময়ও দীর্ঘক্ষণ পড়ুুুয়াদের হাতে ঘেরাও হয়ে থাকে রাজ্যপালের গাড়িও। শেষে অন্য গেট দিয়ে রাজ্যপালের কনভয়কে বের করে দেয় পুলিশ। এই ঘটনার পুনরাবৃত্তি না হওয়ার দিকে সজাগ ছিল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালন বিভাগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *