J&K Status Changing From Today As President Rule Revoked

J&K Status: আজ জম্মু-কাশ্মীর নতুন কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল

কলকাতা

গতকাল বুধবার মধ্যরাত থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে জম্মু–কাশ্মীর (J&K Status) রাজ্য ভেঙে দু’‌টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলরূপে গড়ে উঠলো।

গতকাল বুধবার মধ্যরাত থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে জম্মু–কাশ্মীর (J&K Status) রাজ্য ভেঙে দু’‌টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলরূপে গড়ে উঠলো। জম্মু–কাশ্মীর এবং লাদাখ। গত ৫ই অগস্ট নরেন্দ্র মোদী সরকার এ নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরে তা অনুমোদন করেছে সংসদ। যাতে সই করেছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। ঠিক তিন মাস পর আজ থেকে উপত্যকা একটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল। সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের ১৪৪তম জন্মবার্ষিকীতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। বুধবার মধ্যরাতে কেন্দ্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক একটি সরকারি বিজ্ঞপ্তি জারি করে জম্মু–কাশ্মীর ও লাদাখকে দু’‌টি আলাদা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল ঘোষণা করেছে।

আজ, বৃহস্পতিবারই দুই আমলা গিরিশচন্দ্র মুর্মু শ্রীনগরে এবং আর কে মাথুর লাদাখে উপরাজ্যপাল হিসেবে শপথ নিতে চলেছেন। দু’টি এলাকার পুলিশ এবং আইনশৃঙ্খলা ব্যবস্থা থাকবে কেন্দ্রের হাতে। জমির বিষয়টি দেখবে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের নির্বাচিত সরকার। পাশাপাশি উপত্যকায় রাষ্ট্রপতি শাসনও বাতিল করা হয়েছে। জম্মু ও কাশ্মীর দ্বিখণ্ডিত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ভারতের রাজ্যের সংখ্যা কমে দাঁড়িয়ে হয়েছে ২৮ এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলির সংখ্যা বেড়ে ৯ হয়েছে। রচিত হল নতুন ইতিহাস। উত্সবের আমেজ লাদাখে। কাশ্মীরে আছে বাড়তি সেনা বাহিনী।

পুদুচেরির মতোই জম্মু ও কাশ্মীরে বিধানসভা থাকবে। কিন্তু চণ্ডীগড়ের মতো লাদাখে কোনও বিধানসভা থাকবে না। গিরিশ চন্দ্র মুর্মুর শপথ গ্রহণের সঙ্গে সঙ্গে জম্মু ও কাশ্মীর তার প্রথম লেফটেন্যান্ট গভর্নর পাবে। এদিকে প্রাক্তন প্রতিরক্ষা সচিব রাধাকৃষ্ণ মাথুর লাদাখের লেফটেন্যান্ট গভর্নর হিসাবে শপথ গ্রহণ করেছেন। এখন থেকে জম্মু ও কাশ্মীরের পুলিশ এবং আইনশৃঙ্খলার প্রত্যক্ষ নিয়ন্ত্রণ থাকবে কেন্দ্রের হাতে। জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা খারিজ করে দেওয়ার পাশাপাশি জম্মু-কাশ্মীর থেকে লাদাখকে আলাদা করে একটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত করা হয়। মাথুরকে শপথবাক্য পাঠ করান জম্মু-কাশ্মীর হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি গীতা মিত্তল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *