Kanika Kapoor & Maulana Saad to be Interrogated By Police on COVID-19

Kanika Kapoor & Maulana Saad: পুলিশের জেরার সামনে

কলকাতা

প্রশাসনের জেরার সামনে বসতে হবে কণিকা কাপুর ও মৌলানা সাদকে (Kanika Kapoor & Maulana Saad)। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন …

২১দিনের লকডাউন শেষের পথে। আগামী শনিবার এর সময় আরও বাড়তে পারে। কিন্তু প্রশাসনের জেরার সামনে বসতে হবে কণিকা কাপুর ও মৌলানা সাদকে (Kanika Kapoor & Maulana Saad)। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন তিনি। পরপর পাঁচবার টেস্টের রিপোর্ট এসেছিল পজিটিভ। ষষ্ঠ ও সপ্তম বারের পরীক্ষায় রিপোর্ট নেগেটিভ এলে তাঁকে বাড়ি ফেরার অনুমতি দিয়েছেন লখনউয়ের সঞ্জয় গান্ধী মেডিকেল ইনস্টিটিউটের চিকিৎসকরা। আপাতত বাড়িতেই ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে আছেন তিনি। এই হোম কোয়ারেন্টাইনের মেয়াদ শেষ হলেই কণিকাকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করবে লখনউ পুলিশ।

Nizamuddin Markaz Cleric Maulana Saad
Nizamuddin Markaz Cleric Maulana Saad

এর পাশে আছেন নিজামুদ্দিন মারকাজের প্রধান বিতর্কিত ধর্মগুরু মৌলানা সাদ। তার বিরুদ্ধে করোনা সংক্রান্ত সরকারি নির্দেশিকা অমান্য করার অভিযোগ উঠেছিল। সাবধান করা সত্ত্বেও তিনি নিজামুদ্দিন মারকাজে তবলিঘি জামাতের সমাবেশ চালিয়ে যান বলে অভিযোগ। জানা যাচ্ছে, তিনি এখন দিল্লিতেই হোম কোয়ারেন্টাইনের মধ্যে আছেন। তবে তা কোয়ারেন্টিন শেষ হলেই তার জেরা সম্ভব হবে বলে জানা গিয়েছে।

চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া আগে প্রতিটি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা – আরও জানতে ক্লিক করুন …

লখনউ-এর প্রধান মেডিকেল অফিসার নরেন্দ্র কুমার আগরওয়াল কণিকার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছিলেন সরোজিনী নগর থানায়। সেই কারণেই গায়িকাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। ইংল্যান্ড থেকে ফিরে এসে কণিকা কোয়ারেন্টাইনে না থেকে বিভিন্ন জায়গায় ঘুরেছেন। গত ২০শে মার্চ হাসপাতালে ভর্তি হন গায়িকা।বিদেশ থেকে তবলিগি জামাতের ধর্মীয় অনুষ্ঠানের জন্য নিজামুদ্দিনে মানুষ পৌঁছেছিলেন। নিজামুদ্দিন,করোনার একক বৃহত্তম কেন্দ্র হিসেবে ধরা হচ্ছে। প্রায় ৬০০ মানুষ সেখান থেকেই করোনাতে আক্রান্ত হয়েছে। এইসব মানুষের সংস্পর্শে এসেছেন প্রায় ২৫ হাজারের বেশি মানুষ। তাই বিপর্যয়ের দায় দুজনকে নিতেই হবে।

কোর্টের নির্দেশে প্রাইভেট ল্যাবে বিনামূল্যে করোনা পরীক্ষা – আরও জানতে ক্লিক করুন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *