Maharashtra Assembly formation in the hand of Shiv Sena

Maharashtra Assembly: শিবসেনার অন্য বিকল্প কংগ্রেস

কলকাতা

মহারাষ্ট্রের (Maharashtra Assembly) কংগ্রেস নেতা পৃথ্বীরাজ চহ্বান জানিয়ে দিয়েছেন, শিব সেনা যদি প্রস্তাব নিয়ে আসে, তাহলে সেই প্রস্তাব ভেবে দেখবে কংগ্রেস।

মহারাষ্ট্রে বিজেপি-শিবসেনা তুঙ্গে কাজিয়া। শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত জানালেন , জোট করতে আগ্রহী তারা। কিন্তু এনিয়ে চাপ সৃষ্টি করতে পারে না বিজেপি। তাদের হাতে অন্য বিকল্প রয়েছে। এনসিপির পর কংগ্রেসও শিব সেনার জন্য জোটের রাস্তা খুলে দিল। মহারাষ্ট্রের (Maharashtra Assembly) কংগ্রেস নেতা পৃথ্বীরাজ চহ্বান জানিয়ে দিয়েছেন, শিব সেনা যদি প্রস্তাব নিয়ে আসে, তাহলে সেই প্রস্তাব ভেবে দেখবে কংগ্রেস। ফিফটি-ফিফটি ফর্মুলায় শিবসেনা চাইছে আড়াই বছর মুখ্যমন্ত্রী থাকুক তাদের দল থেকে। মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে এসেছে উদ্ধব ঠাকরের ছেলে আদিত্য ঠাকরের নাম।

এবার বিধানসভা ভোটের ফলপ্রকাশের পর দেখা যায় বিজেপি-শিব সেনার এনডিএ জোট সহজেই ক্ষমতায় ফিরছে। কিন্তু, বিজেপি এককভাবে সরকার গঠনের ধারেকাছে নেই। এমনকী নির্দলদের সমর্থনেও সরকার গড়ার মতো জায়গায় পৌঁছাতে পারছে না গেরুয়া শিবির। সুযোগ বুঝে দর কষাকষি শুরু করে শিব সেনা। অন্যদিকে পাল্টা তোপ দেগেছেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়ণবীসও। তিনি বলেন, ৫০-৫০ ফর্মুলার কোনও ব্যাপার নেই। পালা করে মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার কোনও লিখিত চুক্তি করেনি বিজেপি। আগামী ৫ বছরে মুখ্যমন্ত্রী হবেন বিজেপি থেকেই।

২৮৮ আসনের মহারাষ্ট্র বিধানসভায় সমঝোতা করে লড়াই করেছে বিজেপি-শিবসেনা। বিজেপির ঝুলিতে গিয়েছে ১০৫টি আসন। শিবসেনা পেয়েছে ৫৬। সরকার গঠনের যাদুসংখ্যা ১৪৫। ফলে জোট ছাড়া কোনওভাবেই সরকার গড়তে পারবে না বিজেপি। কংগ্রেস-এনসিপি অপেক্ষায় আছে। শিব সেনা চাইলে তাদের সঙ্গে জোট বেঁধে সরকার গড়তে পওয়ারের আপত্তি নেই। প্রয়োজন কংগ্রেসের সমর্থন। কংগ্রেস নেতা পৃথ্বীরাজ চহ্বান জানান, “শিব সেনা-বিজেপির মহারাষ্ট্রের মানুষকে জানানো উচিত, ভোটের আগে তাদের মধ্যে কী কথা হয়েছিল। আর শিব সেনা প্রস্তাব দিলে কংগ্রেসেও ভেবে দেখবে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *