MHA Asks Again to Meet West Bengal Chief Secretary and DGP

আবার মুখ্যসচিব ও ডিজিপিকে দিল্লির ডাক – ভিডিও কনফারেন্স

কলকাতা পশ্চিমবঙ্গ

বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতির কনভয়ে হামলার ঘটনায় আবার রাজ্যের মুখ্যসচিব ও ডিজিপিকে (Chief Secretary and DGP) দিল্লিতে ডাকলো …

নিজস্ব সংবাদদাতা: নির্বাচনের দিনক্ষণ এখনো প্রকাশ পায় নি। তবু বাংলার রাজনৈতিক আবহ বেশ জমে উঠেছে। এরই মাঝে রাজ্য ও কেন্দ্রের সংঘাত চরমে পৌঁছেছে। খুব সম্প্রতি ডায়মন্ডহারবারে বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতির কনভয়ে হামলার ঘটনায় আবার রাজ্যের মুখ্যসচিব ও ডিজিপিকে (Chief Secretary and DGP) দিল্লিতে ডাকলো দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। আজ শুক্রবার বিকেলে, এই দুজনকে দিল্লিতে ডেকে পাঠানো হয়েছে। যদিও প্রথমবারের মতো এবারও রাজ্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে স্পষ্ট ভাবে জানানো হয়েছে, মাত্রাতিরিক্ত কাজের চাপ থাকায় রাজ্যের প্রশাসন ও পুলিশের দুই শীর্ষ আমলাকে দিল্লি পাঠানো সম্ভব নয়।

MHA Asks Again to Meet West Bengal Chief Secretary and DGP
MHA Asks Again to Meet West Bengal Chief Secretary and DGP

তবে সামনে এসেছে এক সমাধানের রেখাচিত্র। ভিডিও কনফারেন্সে তাদের সাথে বৈঠকে বসার প্রস্তাব এনেছে নবান্ন। দেখা যাচ্ছে, বঙ্গের তিন জন আইপিএস অফিসারকে পোস্টিং দিয়ে থামলো না কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় ও রাজ্য পুলিশের ডিজি বীরেন্দ্রকে আবার ডেকে পাঠালেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিব অজয় ভল্লা। গতকাল বৃহস্পতিবার এই বিষয়ে নবান্নে এক চিঠি পৌঁছেছে। আর সেই চিঠিতে আজ শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৫টায় নয়াদিল্লির নর্থ ব্লকে দুই জনকে পৌঁছাতে বলা হয়েছে। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মুখ্যসচিব ও ডিজিপির সঙ্গে আলোচনা করতে পারেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রসচিব।

[ আরো পড়ুন ] শীলভদ্র দত্ত তৃণমূল দল ছাড়লেন – মুখ্যমন্ত্রীকে দলত্যাগের চিঠি

তবে নবান্নের এই প্রস্তাবে এখনও পর্যন্ত কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায় নি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের। দিল্লির তলবে সাড়া দিয়ে মুখ্যসচিব ও ডিজিপিকে সেখানে পাঠাতে চায় না রাজ্য প্রশাসন। গত ১৪ই ডিসেম্বর ওই দুই শীর্ষ অফিসারকে ডেকে পাঠিয়েছিলেন দিল্লির ভল্লা। সেই সময় নবান্ন, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রককে জানায়, আইনশৃঙ্খলা একেবারেই রাজ্যের এক্তিয়ার ভুক্ত বিষয়। এদিকে নাড্ডার কনভয়ে হামলা নিয়ে তিনটি এফআইআর ও সাত জন গ্রেফতার হয়েছে। তাই দুই শীর্ষ আধিকারিককে দিল্লি যাওয়া থেকে অব্যাহতি দেওয়া হোক।

এই বিষয়ে যদিও দিল্লির চিড়ে ভেজেনি। অমিত শাহর রাজ্য সফরের ঠিক আগে তাদের আবার দিল্লিতে তলব করা হল। ফলে বিধানসভা নির্বাচনের আগে, বঙ্গের পরিস্থিতি বেশ টানাপোড়েনের মধ্যে দিয়ে যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *