Nicco Park Kolkata Turned into Quarantine Centre

কলকাতার নিক্কো পার্কে কোয়ারানটিন সেন্টার

কলকাতা পশ্চিমবঙ্গ

বর্তমান পরিস্থিতি মাথায় রেখে তাই এই নিক্কো পার্ক (Nicco Park Kolkata) পরিণত করা হয়েছে কোভিড ফেসিলিটি হিসেবে। পরিস্থিতি অনুযায়ী সঠিক সিদ্ধান্ত …

নিজস্ব সংবাদদাতা: খেলার মাঠ থেকে বিনোদনের পার্ক একসূত্রে বাঁধা পড়লো। কলকাতার ভাইরাসের সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। ইডেন গার্ডেনের পর নিক্কো পার্কও করোনা রুগীদের জন্য ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হলো। আসলে এমনিতেই শিশুদের ভিড় নেই এখানে বেশ কয়েক মাস। সকল অবাকের খেলার আয়োজন বন্ধ হয়ে আছে। বর্তমান পরিস্থিতি মাথায় রেখে তাই এই নিক্কো পার্ক (Nicco Park Kolkata) পরিণত করা হয়েছে কোভিড ফেসিলিটি হিসেবে। পরিস্থিতি অনুযায়ী সঠিক সিদ্ধান্ত বলে সকলেই মনে করছেন।

Nicco Park Kolkata Turned into Quarantine Centre
Nicco Park Kolkata Turned into Quarantine Centre

নিক্কো পার্ককে, পশ্চিমবঙ্গের প্রাচ্যের ডিজনিল্যান্ড নামে অভিহিত করা হয়। জানা যাচ্ছে, এই বিনোদনের পার্কের ৮০০০ বর্গফুটের একটি হল কোয়ারানটিন সেন্টার হিসেবে রাজ্য সরকারের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। সেখানে ১০০টি বেড দিয়ে শুরু হয়েছে এই কোয়ারানটিন সেন্টার। তবে আরও ৫০টি বেড বাড়ানোর জায়গা এখানে আছে। লকডাউনের শুরু থেকেই বন্ধ আছে এই নিক্কো পার্ক। পার্কটি বন্ধ থাকায় ব্যবসা বিপুল ক্ষতির মুখে পড়েছে কর্তৃপক্ষ।

[ আরো পড়ুন ] হুগলির আয়েশা জান্নাত মোহনা বা প্রজ্ঞা দেবনাথ জেএমবি জঙ্গি

তবু রাজ্যে করোনা সেন্টারের অভাব তৈরী হওয়ার পার্কের ব্যাংকোয়েট হলটি কোভিড সেন্টারে পরিণত করা হল। নিক্কো পার্ক, ১৯৯১ সালের ১৩ই অক্টোবর সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত হয়।বিনোদনের এই উদ্যানটি প্রথমে কেবলমাত্র ১৩টি রাইড ও একটি টয় ট্রেন নিয়ে চালু করা হয়েছিল। এই অতুলনীয় উদ্যানটি পশ্চিমবঙ্গ সরকার এবং নিক্কো কর্পোরেশনের মধ্যে একটি যৌথ উদ্যোগ। রয়্যাল কোর্টইয়ার্ড হল বিয়ে, জন্মদিনের মতো সামাজিক অনুষ্ঠানের জন্য ভাড়া দেওয়া হয়। তাই ৮০০০ বর্গফুটের হলটি এবার কোভিড সেন্টার হিসেবে খুলে দেওয়া হল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *