NRC in Manipur State

NRC in Manipur: বিধানসভায় নাগরিকপঞ্জী প্রস্তাব পাস

কলকাতা

রাজ্য থেকে অনুপ্রবেশকারীদের বের করতে ও নাগরিকপঞ্জী তৈরির ব্যাপারে একটি প্রস্তাব পাস করল মণিপুর বিধানসভা (NRC in Manipur)।

অসমের পর এবার মণিপুরের তৈরি হবে নাগরিকপঞ্জী। আসামে নাগরিকপঞ্জী নিয়ে বিতর্কের মধ্যে ভারতের আরও ৫ রাজ্য থেকে নাগরিক পঞ্জী তৈরির দাবি উঠেছে। নাগরিকপঞ্জী তৈরির দাবি উঠতে শুরু করেছে ত্রিপুরা, মণিপুর, মেঘালয়, ঝাড়খন্ড ও মধ্যপ্রদেশ থেকে। রাজ্য থেকে অনুপ্রবেশকারীদের বের করতে ও নাগরিকপঞ্জী তৈরির ব্যাপারে একটি প্রস্তাব পাস করল মণিপুর বিধানসভা (NRC in Manipur)। সংবাদসংস্থা এএনআইকে একথা জানিয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী এন বীরেন সিং ( Manipur Chief Minister N Biren Singh )। বীরেন সিং বলেন, নাগরিকপঞ্জী তৈরির পক্ষে মণিপুর। এনিয়ে ইতিমধ্যেই একটি প্রস্তাব পাস করেছে রাজ্য মন্ত্রিসভা। মণিপুর ছাড়াও উত্তরপূর্বের অনেক রাজ্যেই নাগরিকপঞ্জী তৈরির প্রয়োজন।

মণিপুরে সম্প্রতি যে মণিপুর পিপলস প্রোটেকশন বিল বিধানসভায় পাশ করা হযেছে তাতে মেইতেই, পাঙ্গাল, কুকি ও ভূমিপুত্রদের পাশাপাশি সেই অ-মণিপুরীরাই রাজ্যে থাকতে পারবেন যারা ১৯৫১ সালের আগে এসেছেন। অন্যরা বহিরাগত হিসেবে বিবেচিত হবে। এই বিল পাশ হওয়ার পর থেকে মণিপুরে হিন্দিভাষী ও বাঙালিরা আতঙ্কে দিন কাটাতে শুরু করেছে।এক রাজ্যে এনআরসি সম্ভাবনা প্রবল।

মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রী এন বীরেন সিং সোমবার এমনই ইচ্ছাপ্রকাশ করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, রাজ্য সরকার এনআরসি বাস্তবায়নের পক্ষে এবং এটি অসমের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখেই করা হবে। এ ব্যাপারে কেন্দ্রের কাছেও ইতিমধ্যে প্রস্তাব পাঠিয়েছেন তিনি।মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রী বলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সোজাসাপটা জানিয়ে দিয়েছেন দেশের কোনও জায়গাতেই অনুপ্রবেশকারীদের থাকতে দেওয়া হবে না। অসমে নাগরিকপঞ্জী তৈরি হয়েছে সুপ্রিম কোর্টের তত্ত্ববধানে। একইভাবে মণিপুরেও নাগরিকপঞ্জী তৈরির কথা কেন্দ্রকে বলা হবে।

মেঘালয়ের খাসি স্টুডেন্টস ইউনিয়নও তাদের রাজ্যে নাগরিকপঞ্জী চালু করে বহিরাগতদের বিতাড়নের দাবি তুলেছে। পশ্চিমবঙ্গে রাগোয়া ঝাড়খন্ডের মীমান্ত এলাকায় বসবাসকারির সংখ্যা বৃদ্ধির অজুহাতে সেই রাজ্যের কিছু বিজেপি বিধায়ক নাগরিকপঞ্জী তৈরির দাবিতে সোচ্চার হয়েছে।মণিপুর সরকার ইতিমধ্যে এনআরসি করার বিষয়ে মন্ত্রিসভায় এই গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এ ব্যাপারে কেন্দ্রের দৃষ্টিভঙ্গি যে একেবারে সঠিক তা জানিয়েছেন মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, কেন্দ্র চায়, কোনও অবৈধ অনুপ্রবেশকারীকে দেশের কোথাও থাকতে দেওয়া হবে না। এটি খুবই স্পষ্ট বার্তা, এর সঙ্গে তিনিও সহমত। রাজ্য কীভাবে এই এনআরসি বাস্তবায়নের পরিকল্পনা করছে, সেই ব্যাপারে বীরেন সিং জানান, এটি কেন্দ্রীয় সরকারের মাধ্যমে করা হবে। অসমে এনআরসি হয়েছে সুপ্রিম কোর্টের তত্ত্বাবধানে। অসমের এনআরসি প্রসঙ্গেই কেন্দ্রীয় সরকার তা অন্য রাজ্যেও করার পক্ষে সওয়াল করেন। সেই মর্মে আমরাও সহমত এনআরসি সঙ্গে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *