PM Modi on Plastic Usage Specially Single-Use Plastic

Modi on Plastic: ধাপে ধাপে প্লাস্টিক বর্জন করতে চান মোদী

কলকাতা

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Modi on Plastic) তাঁর ‘মন কি বাত’-এ এবং স্বাধীনতা দিবসে লালকেল্লার ভাষণে এই বিষয়ে গণসচেতনতার ডাক দেন।

পরিস্থিতি জানাচ্ছে, আমাদের সকলের সতর্ক ও সচেতনতা প্রয়োজন। আজ ২রা অক্টোবর মহাত্মা গান্ধীর ১৫০তম জন্মবার্ষিকীতে প্লাস্টিকের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু হচ্ছে গোটা দেশ জুড়ে ৷ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Modi on Plastic) তাঁর ‘মন কি বাত’-এ এবং স্বাধীনতা দিবসে লালকেল্লার ভাষণে এই বিষয়ে গণসচেতনতার ডাক দেন। কেন্দ্রের নতুন নিয়মে অমন প্লাস্টিক ব্যবহার আটকাতে জরিমানার কথাও বলা হয়েছে ৷ যদিও সংবাদমাধ্যম এবং সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ইতিমধ্যেই বেশ কিছু মানুষ এবিষয়ে সচেতন হয়েছেন। প্লাস্টিকের ব্যাগ, কাপ, প্লেট, গ্লাস বা স্ট্র-এর মতো একবার ব্যবহারযোগ্য প্লাস্টিকের পণ্যের উপর পুরোপুরি নিষেধাজ্ঞার পথে হাঁটছে না নরেন্দ্র মোদী সরকার। দৈনিক ২৬ হাজার টন প্লাস্টিক-বর্জ্য জমা হয় ভারতে।

তবে ধাপে ধাপে ২০২২-এর মধ্যে এই সব প্লাস্টিকের পণ্য ব্যবহার বন্ধ করা হবে। দেশের স্বাধীনতার ৭৫ বছর হিসেবেই ২০২২-এর লক্ষ্য স্থির করা হয়েছে। কিন্তু সার্বিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ না করে একে জন-আন্দোলনের ডাক দিতে চাইছেন প্রধানমন্ত্রী। আসলে সব প্লাস্টিক পণ্যের ব্যবহার নিষিদ্ধ করে দিলে অর্থনীতি ধাক্কা খাবে। প্লাস্টিক শিল্পের হিসেব, দেশে প্রায় ৩০ হাজার প্লাস্টিক নির্মাণকারী সংস্থা রয়েছে। আরও ৩০ হাজার প্লাস্টিক-প্রক্রিয়াকরণের সঙ্গে যুক্ত। সেখানে অন্তত ৪০ লক্ষ মানুষ কাজ করেন। আচমকা প্লাস্টিক-পণ্য নিষিদ্ধ হলে এদের অধিকাংশের আয়ের পথ প্রশ্নচিহ্নের মুখে পড়বে। প্লাস্টইন্ডিয়া ফাউন্ডেশনের প্রেসিডেন্ট জিগিশ দোশী বলেন, ‘‘সংজ্ঞা ঠিক হলে তবেই বোঝা যাবে, ৫০ মাইক্রনের বেশি বা কম পুরু পলিথিন ব্যাগ নিষিদ্ধ হচ্ছে কি না।’’

২০২২-এর মধ্যে এই দেশকে ‘সিঙ্গল-ইউজ প্লাস্টিক’ মুক্ত করতে উদ্যোগী হয়েছে কেন্দ্র। প্রথম ধাপে নিষিদ্ধ হয়েছে ১২টি জিনিস ৷ যার মধ্যে পড়ছে ৫০ মাইক্রনের কম প্লাস্টিকের ক্যারিব্যাগ (হাতল যুক্ত এবং হাতল ছাড়়া), ২০০ মিলি লিটারের কম তরলের জন্য তৈরি প্লাস্টিকের বোতল, প্লাস্টিকের জলের পাউচ, একবার ব্যবহার যোগ্য থার্মকলের থালা-গ্লাস-বাটি-চামচ, ছোট প্লাস্টিকের কাপ, বিভিন্ন রেস্তরাঁয় খাবার দেওয়ার জন্য প্লাস্টিকের পাত্র ইত্যাদি৷ সেক্ষেত্রে এই নিষিদ্ধ দ্রব্যগুলি ব্যবহার করলে প্রথমে ৫ হাজার, দ্বিতীয় বার ধরা পড়লে ১০ হাজার এবং তৃতীয় বারে ২৫ হাজার টাকা জরিমানার সঙ্গে ৩ মাসের জেলও হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *