PM Modi will visit West Bengal on 24th of December 2020

প্রধানমন্ত্রী মোদী বাংলায় আসছেন ২৪শে ডিসেম্বর

কলকাতা পশ্চিমবঙ্গ

বড়দিনের ঠিক আগেই কলকাতায় পা রাখছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (PM Modi in Bengal)। পৌষ উৎসব ও বিশ্বভারতীর শতবর্ষ অনুষ্ঠান…

নিজস্ব সংবাদদাতা: সামনের বছরেই বাংলার বিধানসভা নির্বাচন। বিহারের পর এই বাংলাকেই টার্গেট করছে গেরুয়া শিবির। ফলে পালা করে কেন্দ্রীয় শীর্ষ নেতৃত্ব বাংলাতে আসছেন। বড়দিনের ঠিক আগেই কলকাতায় পা রাখছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (PM Modi in Bengal)। পৌষ উৎসব ও বিশ্বভারতীর শতবর্ষ অনুষ্ঠান উপলক্ষে তিনি রাজ্যে আসছেন। তবে সংক্রমণের পরিস্থিতিতে এই বছর পৌষ মেলা হচ্ছে না। বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, শান্তিনিকেতনে পৌষ উৎসব হবে। আগামী ২৩শে ডিসেম্বর বিশ্বভারতীয় প্রতিষ্ঠা দিবস। সেই বিশেষ অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানানো হয়। এরপর কেন্দ্রীয় প্রধানমন্ত্রীর দফতর সেই আমন্ত্রণে সাড়া দিয়েছে।

PM Modi will visit West Bengal on 24th of December 2020
PM Modi will visit West Bengal on 24th of December 2020

এছাড়া প্রধানমন্ত্রীর একটি মেট্রো প্রকল্পের উদ্বোধন করার কথা আছে। তিনি সেই সময় নোয়াপাড়া থেকে দক্ষিণেশ্বর পর্যন্ত মেট্রো প্রকল্পের সূচনা করবেন। এর ফলে কলকাতা, হাওড়া ও হুগলির বিস্তীর্ণ এলাকার মানুষের যাতায়াত আরও সহজ হবে। তবে এই বারের বাংলা সফরে তার কোনও রাজনৈতিক কর্মসূচি নেই বলে রাজ্য বিজেপি সূত্রে জানানো হয়েছে। ইতিমধ্যে দক্ষিণবঙ্গ সফর সেরে গিয়েছেন বিজেপি সভপতি জেপি নড্ডা ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। যদিও অনেক আগে বিজেপির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল, ডিসেম্বরে রাজ্যে আসবেন দেশের প্রধানমন্ত্রী। ফলে ডিসেম্বরের শেষের এই সফরে রাজ্য রাজনীতির উত্তাপ বেশ বাড়তে চলেছে।

[ আরো পড়ুন ] তৃণমূলে শুভেন্দু অধ্যায় এখন অতীত – দলবদলের হাতছানি !

নোয়াপাড়া – দক্ষিণেশ্বর মেট্রো সম্প্রসারণের কাজ একেবারেই সম্পূর্ণ। লকডাউনের মধ্যে দক্ষিণেশ্বর পর্যন্ত মেট্রো সম্প্রসারণের কাজ চলেছে। লাইন পাতা থেকে শুরু করে স্টেশন সাজানো হয়ে গিয়েছে। অপেক্ষা শুধু উদ্বোধনের। রাজ্য বিজেপি সূত্রে জানা যাচ্ছে, শুধু মাত্র সরকারি কর্মসূচিতে যোগ দিতেই প্রধানমন্ত্রী রাজ্যে আসছেন। তবে বিশ্বভারতীর অনুষ্ঠানে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় ও কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল থাকবেন। তিনি শুধুমাত্র সরকারি কর্মসূচিতে যোগ দিয়ে, আবার দিল্লি ফিরে যাবেন। ফলে “বহিরাগত” তকমা এইবার তাকে হয়তো মাখতে হবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *