Political Parties Clashed at Garden Reach in Kolkata During Lockdown Over Corona Relief Materials

Garden Reach: কলকাতায় বোমাবাজি, ত্রানে রণক্ষেত্র

কলকাতা

লকডাউনের মধ্যে ত্রাণ বিলি নিয়ে সংঘর্ষ ঘটে গেলো বন্দর এলাকার গার্ডেনরিচে (Garden Reach)। প্রশাসন এখন মানুষের কাছে আতঙ্ক সরিয়ে পাশে …

সামনে পেছনে করোনার থাবা। প্রতিদিন মানুষের আতঙ্ক বেড়ে যাচ্ছে। দেশের সাথে রাজ্যে মৃত্যু মিছিল অব্যাহত। মানুষ মানুষের পাশে দাঁড়াতে চাইছে। ক্ষমতার বাইরে গিয়ে এগিয়ে এসেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তবু তার মধ্যে এই শহর দেখলো অতি মন খারাপের দৃশ্য। লকডাউনের মধ্যে ত্রাণ বিলি নিয়ে সংঘর্ষ ঘটে গেলো বন্দর এলাকার গার্ডেনরিচে (Garden Reach)। প্রশাসন এখন মানুষের কাছে আতঙ্ক সরিয়ে পাশে থাকতে চাইছে। অথচ এখানে দুই গোষ্ঠী মেতে উঠলো দাঙ্গায়। একে অপরকে লক্ষ্য করে লাগাতার ইট, বোমা ছুড়তে থাকে। স্থানীয়রা জানাচ্ছে, সংঘর্ষের ফলে ব্যাপক ভাঙচুর হয়েছে এলাকার বেশ কিছু দোকানে। এলাকার রাস্তায় দাঁড় করিয়ে রাখা গাড়িতেও ভাঙচুর করা হয়।

Police Takes Control of Garden Reach Riot
Police Takes Control of Garden Reach Riot

জানা যাচ্ছে, এই অকাম্য ঘটনায় এখনো পর্যন্ত গ্রেফতার হয়েছে সাত জন। গার্ডেনরিচের ঘটনায় জখম হয়েছেন বেশ কয়েকজন। শাসক দলের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়েছে। দীর্ঘদিনের বিবাদ মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে। বন্দর এলাকার তৃণমূল কর্মীদের একাংশ জানিয়েছেন, ১৩৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শামস ইকবাল, যিনি প্রয়াত তৃণমূল নেতা মুন্না ইকবালের ছেলে। আর পাশের ওয়ার্ড ১৩৫, কাউন্সিলর তৃণমূলের আখতারি নিজামির। সেখানকার বাসিন্দারা জানাচ্ছেন, আখতারির ছেলে ববি, মায়ের হয়ে ওয়ার্ডের কাউন্সিলরের দায়িত্ব পালন করেন।

করোনার মধ্যে পিকের ভোট প্রচার – আরও জানতে ক্লিক করুন …

ওই মুন্না ইকবালের মেয়ে সাবা ইকবাল ১৩৫ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে টিকিট পেতে চান। সেখান থেকেই ঝামেলার সূত্রপাত। লুকানো ক্রোধ, সামনে এসেছে। লকডাউনে সমস্যায় থাকা বিভিন্ন পরিবারের জন্য ত্রাণ বিলি করতে নামেন সাবা এবং অনুগামীরা। সাথে সাথে সেখানে পৌঁছে যায় ববির দল। জানা যাচ্ছে, ববির দলবল সাবাকে সেই ত্রাণ বিলিতে বাধা দেয়। আর দ্রুত শুরু হয়ে যায় সংঘর্ষ। কয়েক মিনিটের মধ্যে দুই পক্ষের কয়েকশো মারমুখী রাজনৈতিক কর্মী রাস্তায় নামেন। ভুলে যায় লকডাউনের কথা। গার্ডেনরিচ মোড়, রামনগর রোডে শুরু হয়ে যায় ইট বৃষ্টি আর বোমার শব্দ। দ্রুত ঘটনাস্থলে গার্ডেনরিচ থানার পুলিশ ছাড়াও, বন্দরের বিভিন্ন থানার বাহিনী এবং ডিভিশনের রিজা্র্ভ ফোর্স পৌঁছয়। পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে। তবে কোনো পক্ষই তাদের মতামত জানান নি।

রাজ্যের ২২ জেলায় ২২টি নভেল করোনা হাসপাতাল তৈরি হবে – আরও জানতে ক্লিক করুন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *