President Rule in Maharashtra

President Rule: শেষপর্যন্ত মহারাষ্ট্রে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি

কলকাতা

শেষপর্যন্ত রাষ্ট্রপতি শাসনই (President Rule) জারি হল মহারাষ্ট্রে। ৩৫৬ ধারা অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি শাসনের বিজ্ঞপ্তিতে সইও করে ফেললেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ।

মহারাষ্ট্রে রাষ্ট্রপতি শাসন (President Rule) জারি করার প্রস্তাব প্রথম এনেছিলেন রাজ্যপাল ভগত্‍‌ সিং কোশিয়ারি। আর সেই প্রস্তাবে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা শিলমোহর দিয়েছে। সূত্রের খবর, সব জল্পনার অবসান। শেষপর্যন্ত রাষ্ট্রপতি শাসনই জারি হল মহারাষ্ট্রে। ভারতীয় সংবিধানের ৩৫৬ ধারা অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি শাসনের বিজ্ঞপ্তিতে সইও করে ফেললেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। রাষ্ট্রপতি শাসন নিয়ে তীব্র আপত্তি জানিয়েছে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি। NCP-কে দেওয়া নির্ধারিত সময়সীমার আগেই কী ভাবে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করার সুপারিশ করলেন রাজ্যপাল ভগৎ সিংহ কেশিয়ারি, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে কংগ্রেস ও শিবসেনা। মহারাষ্ট্রের সরকার গঠনের জন্য মাত্র এক দিন সময় দেওয়ার সিদ্ধান্তে বেজায় চোটে গিয়ে শিবসেনা আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে। নিন্দা করেছে বাম থেকে শুরু করে অন্যান্য আঞ্চলিক দলগুলিও।

মহারাষ্ট্রের বিধানসভা ভোটের ফলাফল ত্রিশংকু হওয়ায় শিবসেনা মুক্ষমন্ত্রীর কুর্শিকে পাখির চোখ করে রেখেছিলো। কিন্তু কোনও দলই সমঝোতার মাধ্যমে সরকার গঠন করতে না পারায় সাংবিধানিক ভাবে রাজ্যপাল প্রথমে কেন্দ্রকে রাষ্ট্রপতি শাসনের আর্জি জানান। ঠিক তারপর ব্রাজিল সফরকে এড়িয়ে, জরুরি পরিস্থিতিতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠক ডাকেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। তাতে রাষ্ট্রপতি শাসনের পক্ষে সায় দিয়ে এই সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি জারি করার জন্য রাষ্ট্রপতি ভবনকে সুপারিশ করে মন্ত্রিসভা। সেই বিজ্ঞপ্তিতে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ সই করার পরেই সাংবিধানিক ভাবে মহারাষ্ট্রে কার্যকরী হল ৩৫৬ ধারা, অর্থাৎ রাষ্ট্রপতি শাসন।

দ্বিতীয় বৃহত্তম দল হিসেবে শিবসেনা সরকার গঠনের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক বিধায়কের সমর্থনপত্র দিতে না পারায় এনসিপি-কে ডাকেন রাজ্যপাল। এনসিপির সময় ছিল মঙ্গলবার রাত সাড়ে আটটা পর্যন্ত। কিন্তু তার আগেই রাষ্ট্রপতি শাসন জারি হয়ে গেল মহারাষ্ট্রে। তবে কি আবার হতে চলেছে মহারাষ্ট্রের বিধানসভা ভোট । কিন্তু, ২০১৯ -এ তা সম্ভব নয়, কারণ ঝাড়খণ্ডের ভোট । সেখানেও বিজেপির জন্য সুখবর কিছু নেই, কারণ রামবিলাস পাসোয়ানের পার্টি LJP বিধানসভা ভোটে একাই লড়বে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *