Sabarimala Temple Opening Today without Security in Kerala

Sabarimala Temple: নিরাপত্তা ছাড়াই আজ খুলছে শবরীমালা

কলকাতা

খুলছে কেরলের ঐতিহ্যমণ্ডিত শবরীমালা মন্দির (Sabarimala Temple) । যদিও ৪০ দিনের বার্ষিক তীর্থযাত্রার এই সময় নিয়ে সতর্ক রয়েছে কেরল সরকার।

ধর্মীয় নিষেধের দরজা খুলেও খোলে না। আজ শনিবার বিকেল থেকে খুলছে কেরলের ঐতিহ্যমণ্ডিত শবরীমালা মন্দির (Sabarimala Temple) । যদিও ৪০ দিনের বার্ষিক তীর্থযাত্রার এই সময় নিয়ে সতর্ক রয়েছে কেরল সরকার। কেরালার সরকারি প্রশাসন জানিয়েছে, শবরীমালা মন্দির কোনও আন্দোলন করার জায়গা নয়, ফলে এখানে কোনও আন্দোলন-বিক্ষোভ মেনে নেওয়া না। আবার অনুদিকে শবরীমালায় যেতে ইচ্ছুক কোনও মহিলা আন্দোলকারী, বা রাজনৈতিক নেত্রীকে কোনও রকম পুলিশি নিরাপত্তা আলাদা করে দেওয়া হবে না। এর আগে ২০১৮ সালে সেপ্টেম্বরে সুপ্রিম কোর্ট এক ঐতিহাসিক রায়ে ওই মন্দিরে সব বয়সের মহিলাদেরই প্রবেশের অনুমতি দেয়।

আজ শনিবার থেকে ৪১ দিনের জন্য খুলছে কেরলের শবরীমালা মন্দির। বিকাল ৫টায় পুণ্যার্থীদের জন্য মন্দিরের দরজা খুলে দেওয়া হবে। ফলে পুরুষদের পাশাপাশি মন্দিরে ঢুকতে পারবেন ১০-৫০ বছর বয়সী মহিলারাও। তবে কড়া নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয়েছে গোটা এলাকা। ১০ হাজারেরও বেশি পুলিশ মোতায়েন করেছে রাজ্য সরকার। পুলিশ মোতায়েন হলেও, মহিলা পু্ণ্যার্থীদের নিরাপত্তার দায়িত্ব না নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেরলের বাম সরকার। এখানে ৮০০ এরও বেশি চিকিৎসা সহায়তাকারী এবং ১৬ টি জরুরি চিকিৎসা কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। প্রায় ২,৪০০ টি শৌচাগার এবং ২৫০-রও বেশি জলের কিয়স্ক রাখা যাচ্ছে। পাশাপাশি পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখতে এক হাজারেরও বেশি সাফাইকর্মী মোতায়েন রয়েছে মন্দির চত্বরে।

কেরল স্টেট রোড ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশন পাম্বা ও নীলক্কলের মধ্যে প্রায় ১৮ কিলোমিটার পথ ভক্তদের আসার জন্য ১৫০ টি বাস মজুত আছে। কেরলের আইনমন্ত্রী ও বর্ষীয়ান সিপিএম নেতা একে বালান জানান, ” গত বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিরা এই বিষয় নিয়ে একমত হতে পারেননি। ফলে এবিষয়ে প্রশাসনের মধ্যে দ্বিধা তৈরি হয়েছে। তাই সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, এ বিষয়ে স্পষ্ট নির্দেশ পাওয়ার পরেই মন্দিরে প্রবেশ করতে চাওয়া সব বয়সের মহিলাদের নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হবে। তার আগে এবিষয়ে এমন কোনও সিদ্ধান্ত সরকার নেবে না যার জন্য ভক্তরা সরকারের বিরুদ্ধে চলে যায়।” এই মন্দির খোলা থাকবে আগামী ২০শে জানুয়ারি পর্যন্ত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *