Santu Mukherjee was an Indian film actor who worked in Bengali cinema

Santu Mukhopadhyay: প্রয়াত অভিনেতা সন্তু মুখোপাধ্যায়

ইতিহাস কলকাতা বিনোদন

না ফেরার দেশে পাড়ি দিলেন বাংলার প্রখ্যাত অভিনেতা সন্তু মুখোপাধ্যায় (Santu Mukhopadhyay)। তিনি বেশ কিছুদিন ধরেই ক্যান্সারে অসুস্থ ছিলেন। …

না ফেরার দেশে পাড়ি দিলেন বাংলার প্রখ্যাত অভিনেতা সন্তু মুখোপাধ্যায় (Santu Mukhopadhyay)। তিনি বেশ কিছুদিন ধরেই ক্যান্সারে অসুস্থ ছিলেন। গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় দক্ষিণ কলকাতায় নিজের বাড়িতেই মৃত্যু হয় অভিনেতার। ব্লাডসুগার এবং হাইপারটেনশনের রোগী ছিলেন ৬৮ বছরের এই অভিনেতা। বাড়িতে শ্বাসকষ্টের সমস্যা শুরু হওয়ায় গত ৪ ফেব্রুয়ারি গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় সন্তু মুখোপাধ্যায়কে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। দক্ষিণ কলকাতায় ঢাকুরিয়ার কাছে একটি বেসরকারি হাসপাতালে তাঁকে ভর্তি করা হয়। পরে তাঁর অবস্থার উন্নতি হয়েছিল।

Santu Mukhopadhyay with his family
Santu Mukhopadhyay with his family

হাসপাতাল সূত্রে জানানো হয়েছিল, তাঁর রক্তে হিমোগ্লোবিনের মাত্রা অনেকটাই কমে গিয়েছিল। পটাশিয়ামের মাত্রাও অনেকটা পড়ে যায়। পরিচালক তরুণ মজুমদারের ‘সংসার সীমান্ত’ দিয়ে বাংলা ছবিতে যাত্রা শুরু অভিনেতা সন্তু মুখোপাধ্যায়ের। কমবেশি শতাধিক চলচ্চিত্রে ও একাধিক টেলিভিশনের পর্দায় অভিনয় করে বাঙালির মন জয় করেছেন তিনি। সাংসদ-অভিনেতা তাপস পালের প্রয়াণে রেশ কাটাতে না কাটতে টলিউড ইন্ডাস্ট্রি আবার হারালো আরও এক প্রথম সারির অভিনেতাকে, তাই বলা যেতে পারে টলিউডে আর এক নক্ষত্রের পতন হলো। প্রখ্যাত অভিনেতা সন্তু মুখোপাধ্যায় এর প্রয়াণে শোকস্তব্ধ গোটা টলিউড।

নুসরাত পেলেন ‘তুমি অনন্যা’ পুরস্কার – আরও জানতে ক্লিক করুন …

তরুণ মজুমদার, হরনাথ চক্রবর্তী প্রমুখ পরিচালকের ছবিতে চুটিয়ে কাজ করেছেন সন্তু মুখোপাধ্যায়। বড় পর্দার পাশাপাশি মঞ্চ, যাত্রা সব ক্ষেত্রেই নিজের ছাপ রেখে গেছেন তিনি। ছোট পর্দাতেও কাজ করেছেন শেষ জীবন অবধি। সম্প্রতি ‘নক্সি কাঁথা’ ধারাবাহিকে অভিনয় করছিলেন তিনি। ইস্টিকুটুম, কুসুমদোলার মতো বহু জনপ্রিয় বাংলা সিরিয়ালে নিয়মিত অভিনয় করেছেন তিনি। তাঁর অভিনীত জনপ্রিয় ছবিগুলির মধ্যে রয়েছে বৈকুণ্ঠের উইল, মান অভিমান, দেবদাস প্রভৃতি। তার আত্মার শান্তি কামনা করি।

রণবীর দাদা সৌরভ বায়োপিকের নায়ক! – আরও জানতে ক্লিক করুন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *