SC on Vijay Mallya Can Not Use Pendency of Plea to Stall Verdict in UK

SC on Vijay Mallya: কোর্টে বিপাকে পলাতক বিজয় মালিয়া

কলকাতা

সুপ্রিম কোর্ট (SC on Vijay Mallya) জানিয়েছে, শীর্ষ আদালতে চলা মামলার দোহাই দিয়ে সমান্তরালভাবে চলা ঋণখেলাপির মামলা স্থগিত রাখা যায় না।

মালিয়া বিজয়ের জয়ের ধারা বেশ হোঁচট খেলো। পলাতক বিজয় মালিয়া চাপে পড়লেন। আজ সোমবার সুপ্রিম কোর্ট (SC on Vijay Mallya) জানিয়েছে, শীর্ষ আদালতে চলা মামলার দোহাই দিয়ে সমান্তরালভাবে চলা ঋণখেলাপির মামলা স্থগিত রাখা যায় না। প্রধান বিচারপতি শরদ অরবিন্দ বোবদের বেঞ্চে সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহেতা জানান, ২০১১ সাল থেকেই বিভিন্ন ব্যাংকগুলির বকেয়া টাকা মেটাচ্ছেন না মালিয়া। এদিন শীর্ষ আদালতে কেন্দ্র জানায়, সুপ্রিম কোর্টে চলা মামলার দোহাই দিয়ে ব্রিটেনের আদালতে চলা ঋণখেলাপির মামলায় রায়দান আটকে দিয়েছেন মালিয়া। ফলে বিচার প্রক্রিয়ায় অকারণ দেরি হচ্ছে।

২০১৬ সালে ভারতের বিভিন্ন ব্যাংক থেকে নয় হাজার কোটি রুপি ঋণ নিয়ে তা পরিশোধ না করে যুক্তরাজ্যে পালিয়ে যান মালিয়া। এক বছর পর তাঁকে গ্রেপ্তার করে লন্ডন পুলিশ। এর পর ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে লন্ডনের ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মালিয়ার বিচার শুরু হয়। ২০১৮তেই পাশ হয় ‘আর্থিক কারচুপি আইন’। আইন হওয়ার পর দেশের প্রথম ‘পলাতক আর্থিক অপরাধী’র-এর খেতাব জোটে বিজয় মালিয়ার। মুম্বইয়ের দুর্নীতি বিরোধী আদালত ইডি-র আবেদন শুনে মালিয়াকে ‘ফিউজিটিভ ইকনমিক অফেন্ডার’ হিসেবে ঘোষণা করেছিল। আজ প্রধান বিচারপতি বোবদের বেঞ্চ জানায়, শীর্ষ আদালতে চলা মামলার যুক্তি দিয়ে বিশ্বে কোনও জায়গাতেই সমান্তরালভাবে চলা ঋণখেলাপির কোনও মামলা স্থগিত রাখা যাবে না।

গত ২৭শে জুন, সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার বিরুদ্ধে আবেদন জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করেছিলেন মালিয়া। সেই মামলা এখনও চলছে। এদিকে, ব্রিটেনের একটি আদালতে মালিয়ার বিরুদ্ধে ঋণখেলাপ সংক্রান্ত একটি মামলা দায়ের করে স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া। যেহেতু ভারতের শীর্ষ আদালতে মামলা চলছে তাই নয়া মামলায রায়দান স্থগিত রেখেছে ব্রিটিশ আদালত। ইডি সূত্রে জানা যাচ্ছে, বিজয় মালিয়ার ঋণ শোধ করতে বাজেয়াপ্ত হওয়া যাবতীয় সম্পত্তি নিলাম করা যাবে। আগামী ১৮ই জানুয়ারির পরই তাঁর সব সম্পত্তি বিক্রি করতে পারবে দেশের ব্যাংকগুলি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *