TMC MLA Silbhadra Dutta quits party

শীলভদ্র দত্ত তৃণমূল দল ছাড়লেন – মুখ্যমন্ত্রীকে দলত্যাগের চিঠি

কলকাতা পশ্চিমবঙ্গ

দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ই-মেইল করে পদত্যাগের কথা জানান ব্যারাকপুরের বিধায়ক শীলভদ্র দত্ত (Silbhadra Dutta quits party)।

নিজস্ব সংবাদদাতা: একে একে ত্যাগীর সংখ্যা বাড়ছে। তৃণমূলের অন্দরে তৈরী হচ্ছে গভীর শূন্যতা। শুভেন্দু, রাজেন্দ্র, শ্যামাপ্রসাদের পর আজ তৃণমূল দল ছাড়লেন বিধায়ক শীলভদ্র দত্ত। দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ই-মেইল করে পদত্যাগের কথা জানান ব্যারাকপুরের বিধায়ক শীলভদ্র দত্ত (Silbhadra Dutta quits party)। তবে, বিধায়ক পদ এখন ছাড়ছেন না শীলভদ্র দত্ত। মানুষের ভোটে জিতেই তিনি বিধায়ক হয়েছেন। আর সেই কারণেই বিধায়ক পদ থেকে এখনই তিনি ইস্তফা দিচ্ছে না। নিজের অফিসে থাকা মুখ্যমন্ত্রীর ছবি সরে গেছে। আর সেই জায়গায় স্বামী বিবেকানন্দের ছবি দেখা যাচ্ছে। তবে এই প্রসঙ্গে তিনি আজ কোনও মন্তব্য করেননি।

TMC MLA Silbhadra Dutta quits party
TMC MLA Silbhadra Dutta quits party

জানা যাচ্ছে, সরকারের দেওয়া গাড়ি তিনি আগেই ছেড়ে দিয়েছেন। তবে ব্যক্তিগত নিরাপত্তা এখনও ছাড়েন নি। এই বিষয়ে তিনি জানিয়েছেন, ‘সরকার চাইলে নিয়ে নিতে পারে।’ অনেকদিন ধরেই তিনি সরে আসার বিষয়ে মতামত জানান। ‘পিকে’র কাজ নিয়ে ক্ষোভ ছিল। গত ২রা নভেম্বর তিনি জানান, ২০২১ সালের বিধানসভায় ভোটে লড়বেন না। এরপর জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক ও পিকে-র দল পালা করে তার কাছে গিয়ে মানভঞ্জনের চেষ্টা করে। কিন্তু বিধায়ক শীলভদ্র নিজের সিদ্ধান্তে অনড় থাকেন। রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক তার বাড়িতে যান। যদিও সেই সময় বাড়িতে ছিলেন না শীলভদ্র।

[ আরো পড়ুন ] তৃণমূল দল ছাড়লেন শুভেন্দু অধিকারী – নতুন অধ্যায় ?

গত সপ্তাহে তিনি, বিজেপির সহ সভাপতি মুকুল রায়ের বাড়িতে যান। যদিও এই নিয়ে চাপানউতোর জারি আছে। শীলভদ্রবাবু, মুকুল রায়কে বড় দাদা বলে সম্বোধন করেন। ফলে এবার এই তৃণমূল বিধায়কের বিজেপি যোগের জল্পনা তৈরি হয়। আজ দল ছাড়ার মধ্যে অন্য অঙ্ক প্রকট হচ্ছে। এটাই কি তবে অধিকারী তুফান! হতে পারে আগামী শনিবারই বিজেপি-তে যোগদান করতে চলেছেন শীলভদ্র দত্ত ৷ সেই মঞ্চে থাকছে শুভেন্দু অধিকারী। আসলে মেদিনীপুরে অমিত শাহের সভাতে তিনি বিজেপিতে যোগদান করতে পারেন। যদিও সেএই কথা একেবারেই স্বীকার করেননি শীলভদ্র দত্ত ৷

[ আরো পড়ুন ] রাজ্যে ৭ কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে ঘুঁটি সাজানোর দায়িত্ব বিজেপির

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *