A new committee to tackle corruption in Amphan cyclone relief fund in West Bengal

আমফানের দু্র্নীতি থামাতে পঞ্চায়েত স্তরে কমিটি

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের খবর

ক্ষতিগ্রস্থ অগণিত মানুষ এখনো নীল আকাশের নিচে রাত কাটাচ্ছে। ভাইরাসকে তারা আর ভয় পাচ্ছে না। ত্রানের (Amphan cyclone relief fund) ব্যবস্থা হলেও …

নিজস্ব সংবাদদাতা: বিপর্যয়ের সাইক্লোন এক মাস পার হয়ে গেছে। কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের বিবাদ এখনো রয়ে গেছে। কিন্তু ক্ষতিগ্রস্থ অগণিত মানুষ এখনো নীল আকাশের নিচে রাত কাটাচ্ছে। ভাইরাসকে তারা আর ভয় পাচ্ছে না। ত্রানের (Amphan cyclone relief fund) ব্যবস্থা হলেও ঠিক জায়গাতে পৌঁছাচ্ছে না। ক্ষতিগ্রস্তদের প্রাপ্যের ঝুলি প্রায় শূন্য। কষ্টের এই বিষয়গুলি সামনে আসার পর ত্রাণের দুর্নীতির বিরুদ্ধে সর্ব হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

[ আরো পড়ুন ] দিল্লিতে পৌঁছালো সারদার চূড়ান্ত খসড়া – তৎপর সিবিআই

সর্বদলীয় বৈঠকে এটি আরো প্রকট হয়। এবার দুর্নীতি রুখতে পঞ্চায়েত স্তরে কমিটি গঠনের নির্দেশ দিলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। নবান্ন থেকে প্রত্যেক জেলার জেলা শাসককে কড়া নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রতিটি গ্ৰাম পঞ্চায়েতে একটু দক্ষ কমিটি গঠন করতে হবে। সেই কমিটি যাচাই করে দেখবে উপভোক্তাদের নামের তালিকার স্বসচ্ছতা।

A new committee to tackle corruption in Amphan cyclone relief fund in West Bengal
A new committee to tackle corruption in Amphan cyclone relief fund in West Bengal

এই কমিটিতে থাকবেন এক জন গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য, বিডিও-র প্রতিনিধি, একজন সরকারি আধিকারিক। বিরোধী দলের কোনও প্রতিনিধিকে কমিটিতে রাখা যাবে। কমিটি গড়তে গড়তে আবার বর্ষার ভ্রূকুটি দেখা দিচ্ছে। তবে ৭ দিনের মধ্যে কমিটির তালিকা তৈরি করে নবান্নে পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

[ আরো পড়ুন ] এখনই ভোট হলে জিতবে তৃণমূল শুরু হয়েছে জোটের অঙ্ক

পঞ্চায়েতের সদস্যরা, আত্মীয়-স্বজনের নামেও ত্রাণের টাকা পকেটস্থ করছে। অভিযোগে তোলপাড় দক্ষিণ ২৪ পরগণার বিভিন্ন এলাকা। ক্ষোভে ফুঁসছেন আমফানে অগণিত ক্ষতিগ্রস্তরা। জেলা পরিষদের সভাধিপতি সামিমা শেখ জানিয়েছেন, একই পরিবারের সকলের নাম ত্রাণের তালিকা লজ্জার। এসবের তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সিপিএমের কান্তি গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, “গরিব মানুষ একটা ত্রিপল পেল না। এই বৃষ্টিতে তারা পড়বার নিয়ে থাকবে কোথায়? এর পাশে হাজার হাজার ত্রাণের টাকা আত্মসাৎ হয়ে যাচ্ছে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *