Central BJP leaders will be active in West Bengal Election 2021

রাজ্যে ৭ কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে ঘুঁটি সাজানোর দায়িত্ব বিজেপির

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের খবর

দেশের উত্তর থেকে দক্ষিণের সব রাজ্য ছেড়ে হেভিওয়েট নেতৃত্বকে (Central BJP leaders) বাংলার দায়িত্বে পাঠানো হচ্ছে। তৃণমূলের সামনে …

নিজস্ব সংবাদদাতা: ২১-এর বিধানসভা নির্বাচন এগিয়ে আসছে। সব রাজনৈতিক দল গোটা জেলায় ছুটতে শুরু করেছে। তবে প্রধান লড়াই হবে পদ্ম ও ঘাস ফুলে। বিহারের পর বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব এবার বাংলাকে টার্গেট করেছে। যেভাবেই হোক পূর্ব ভারতে গেরুয়া শিবির নিজেদের সীমানা বাড়াতে চায়। বিজেপির প্রধান লক্ষ্য ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনে বাংলায় ২০০ আসন। এটা একেবারেই সহজ নয়। তৃণমূলের সামনে বাম, কংগ্রেসে সাথে আছে আতংকের মিম। সেই সুযোগকে কাজে লাগাতে মরিয়া বিজেপি। সেই কারণেই, দেশের উত্তর থেকে দক্ষিণের সব রাজ্য ছেড়ে হেভিওয়েট নেতৃত্বকে (Central BJP leaders) বাংলার দায়িত্বে পাঠানো হচ্ছে।

Central BJP leaders will be active in West Bengal Election 2021
Central BJP leaders will be active in West Bengal Election 2021

এথেকেই বোঝা যাচ্ছে, বিজেপির প্রধান লক্ষ্য বাংলার মসনদ। পদত্যাগের খেলা জমে উঠেছ। ফলে মস্ত সম্ভাবনা তৈরী হচ্ছে। তবে এই তালিকার শীর্ষে আছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ। বিজেপির সেকেন্ড ইন কম্যান্ড জানিয়েছেন, ‘Formula 23′ গোপন স্ট্রাটেজি সঠিক ভাবে মেনে চলতে হবে দলীয় কর্মী ও সংগঠনগুলিকে। এই ফর্মুলাতেই বাংলার নির্বাচনে জেতা সম্ভব। আগামী ২৯শে ডিসেম্বর রাজ্যে আসছেন অমিত শাহ। আগেই রাজ্যের পাঁচটি জোনে পাঁচজন কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষককে নিয়োগ করা হয়েছে। এদের সামনে আছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। তিনি এখন ভাইরাসে পজিটিভ। আর তাই এই তালিকায় নতুন সংযোজন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

[ আরো পড়ুন ] বাংলার সংখ্যালঘু ভোট কাটতে ঘর গোছাচ্ছেন মিম ওয়েইসি!

দক্ষ ভাবে বিজেপি নির্বাচনে জিততে নামছে। বাংলার আগামী নির্বাচন পর্যন্ত আসবেন অন্যধারার সাতজন। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে প্রচার থেকে সংগঠন সামলাবেন এই সাতজন। এদের প্রত্যেকের দায়িত্বে থাকবে ৬ থেকে ৭টি করে লোকসভা কেন্দ্র।

[ আরো পড়ুন ] রাজ্যে কেন্দ্রীয় উপ মুখ্যনির্বাচন কমিশনার সুদীপ জৈন

কেন্দ্রীয় জলসম্পদ মন্ত্রী গজেন্দ্র সিং সাখাওয়াত, সংখ্যালঘু উন্নয়ন মন্ত্রী অর্জুন মুন্ডা, জাহাজমন্ত্রী মনসুখ মান্ডভিয়া, পর্যটন ও সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ সিং পটেল ও পশুপালন মন্ত্রী ড. সঞ্জীব বল্যানকে রাজ্যের দায়িত্ব সামলানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এদের সাথে উত্তরপ্রদেশের ডেপুটি মুখ্যমন্ত্রী কেশবপ্রসাদ মৌর্য ও মধ্যপ্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড. নরোত্তমকে কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষকের দায়িত্বে রাখা হয়েছে। এনারা বিস্তারিত রিপোর্ট ৩১শে ডিসেম্বরের মধ্যে পেশ করবেন জেপি নাড্ডাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *