Central govt allows Rs 2700 crore more for Amphan cyclone affected people in West Bengal

আমফান মোকাবিলায় বাংলাকে আরও ২৭০০ কোটি

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের খবর

রাজ্যকে আমফানের জন্য আরও ২ হাজার ৭০০ কোটি টাকা সাহায্যের (Amphan cyclone affected people) ঘোষণা করা হলো।

নিজস্ব সংবাদদাতা: বাংলা সহ আরো ৫ রাজ্যকে কেন্দ্রীয় সরকার আমফান মোকাবিলার আর্থিক সাহায্য দিচ্ছে। কয়েক মাস আগে ভাইরাস আবহে এই প্রবল ঝড় বাংলার অনেকগুলো জেলাকে তছনছ করে দেয়। সেই সময় রাজ্যে প্রধানমন্ত্রী পরিদর্শনে আসেন। তিনি ১ হাজার কোটি টাকা সাহায্যের ঘোষণা করেছিলেন। কিন্তু কেন্দ্রের এই অনুদান যথেষ্ট মনে হয়নি মমতা ব্যানার্জীর কাছে। রাজ্যের বিধানসভা ভোটের আগে স্বস্তি দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। রাজ্যকে আমফানের জন্য আরও ২ হাজার ৭০০ কোটি টাকা সাহায্যের (Amphan cyclone affected people) ঘোষণা করা হলো।

Central govt allows Rs 2700 crore more for Amphan cyclone affected people in West Bengal
Central govt allows Rs 2700 crore more for Amphan cyclone affected people in West Bengal

এই অর্থ অনেকটাই রাজ্যের কাজে আসবে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের নেতৃত্বে গঠিত একটি উচ্চ পর্যায়ের কমিটি এই বিষয়টি দেখেন। আজ শুক্রবার এই রাজ্যের সঙ্গে আরও পাঁচটি রাজ্যকে ঘূর্ণিঝড়, বন্যা ও ধসের মোকাবিলার জন্য প্রায় ৪ হাজার ৩৮১ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক ৬টি রাজ্যের জন্য মোট ৪৩৮২ কোটা টাকা অনুদান দিচ্ছে। গত ২০শে মে সুন্দরবনের সাগর দ্বীপের কাছে উপকূলে আছড়ে পড়ে ঘূর্ণিঝড় আমফান। প্রায় ১৮৫ কিলোমিটার গতিবেগের সেই ঝড়ে লন্ডভন্ড হয় কলকাতা, দুই ২৪ পরগনা-সহ রাজ্যের বিস্তীর্ণ এলাকা।

[ আরো পড়ুন ] ৩ মাসে চাকরির সুনামি – শিক্ষকের সাথে থাকছে পুলিশ

বাংলার সাথে অনুদান পাচ্ছে ওড়িশা, সিকিম,মধ্যপ্রদেশ, কর্ণাটক ও মহারাষ্ট্র। প্রথমে ওড়িশাকে ৫০০ কোটি টাকা সাহায্যের ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। এবার ওড়িশাকে ঘূর্ণিঝড়ের মোকাবিলায় আরও ১২৩.২৩ কোটি টাকা দেওয়া হচ্ছে। ঘূর্ণিঝড় নিসর্গের মোকাবিলায় মহারাষ্ট্রকে দেওয়া হচ্ছে ২৬৮.৫৯ কোটি টাকা। কর্ণাটক রাজ্য বর্ষা ও বন্যার ক্ষতি মোকাবিলায় জন্য পাচ্ছে ৫৭৭.৮৪ কোটি টাকা। একই সাথে মধ্যপ্রদেশের সরকার পাচ্ছে ৬১১.৬১ কোটি টাকা। সিকিম পাহাড়ের ধসের মোকাবিলার জন্য ৮৭.৮৪ কোটি টাকা পাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *