Deputy super of Katwa Sub Divisional Hospital attempts suicide after MMS leak

মধুচক্র কাটোয়া হাসপাতালে!আত্মহত্যার পথে ডেপুটি সুপার

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের খবর

তিনি হাসপাতালের (Katwa Sub Divisional Hospital) ডেপুটি সুপার। অথচ সেখানেই মহিলাদের উপর চালিয়েছেন অকথ্য যৌন হেনস্তা। এখানেই শেষ নয় …

নিজস্ব সংবাদদাতা: মানব সেবার ধারা বদলে দিয়েছেন এক অমানুষ। তিনি প্রত্যক্ষ ভাবে হাসপাতালের সাথে জড়িত। অথচ সেখানেই বানিয়ে তুলেছে রেডলাইট জোন। তিনি হাসপাতালের (Katwa Sub Divisional Hospital) ডেপুটি সুপার। অথচ সেখানেই মহিলাদের উপর চালিয়েছেন অকথ্য যৌন হেনস্তা। এখানেই শেষ নয়, ক্ষমতা ও টাকার জোরে তা আটকে দিতেন। এই বেপরোয়া জঘন্য ঘটনা ঘটেছে কাটোয়া মহকুমা হাসপাতালে।

মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী দেখুন আপনার কাটোয়া মহকুমা হাসপাতালের ASSISTANT SUPER অনন্য ধর মহিলাদের কাজ পাইয়ে দেয়ার বিনিময়ে হাসপাতালের মধ্যে মধুচক্র বা শারীরিক শোষন করছেন। বন্ধুরা এটা খুব শেয়ার করুন। যাতে কুকুরটার চাকরি না থাকে।আমাদের বাংলার স্বাস্থ্য পরিষেবার লজ্জা।আশা করি মাননীয়া স্বাস্থ্যমন্ত্রী আপনি এই কুকুরটার বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেবেন।

Posted by Annya Dey on Monday, 29 June 2020

তিনি এই অভিযোগ প্রকাশ্যে আসতেই ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন। পূর্ব বর্ধমান জেলার কাটোয়া এলাকার বাসিন্দা এক মহিলা ফেসবুকে ৫৩ সেকেন্ডের একটা ভিডিও সোমবার গভীর রাতে পোষ্ট করেন। এটা নিয়ে চলছে ব্যাপক জল্পনা। ওই ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, হাসপাতালের মধ্যে একটি ঘর। তার দরজা খোলা।

[ আরো পড়ুন ] বেসরকারি বাসে ভর্তুকি – করোনার রেট বাঁধলেন মুখ্যমন্ত্রী

সেই ঘরের মধ্যে বসে আছেন এক মহিলা। আর তার পাশে দাঁড়িয়ে এক বয়স্ক পুরুষ। তিনি ধীরে ধীরে এগিয়ে আসেন। মাথা নিচু করে বসেছিলেন মহিলা। পুরুষটি মহিলার বস্ত্র সরিয়ে নিতম্বের উপর একটা চুম্বন করলেন। কোনোভাবেই সেই মহিলা বাধা দিতে পারেন নি।

Deputy super of Katwa Sub Divisional Hospital attempts suicide after MMS leak
Deputy super of Katwa Sub Divisional Hospital attempts suicide after MMS leak

তবে পুরুষটি সেখানেই থেমে যান। তারপর মহিলা ঘরের বাইরে যাওয়ার জন্য এগিয়ে যান। মাত্র ৫৩ সেকেন্ডের ভিডিও এখানেই শেষ হয়। সেই ক্লিপিংস সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। এই ছবি প্রকাশ্যে আসতেই গতকাল রাতে তিনি ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন।

[ আরো পড়ুন ] রাজ্যের প্রথম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির সিলেবাসে ‘করোনা’

কাটোয়া মহকুমা হাসপাতালের সুপার রতন শাসমল জানান, “ওই ভিডিও ফুটেজটি সরকারি হাসপাতালের ভিতরের। হাসপাতালের ভিতরে এই ধরনের ঘটনা একেবারেই বাঞ্ছনীয় নয়। এর বিভাগীয় তদন্ত হবে। ঘটনায় দোষী সাব্যস্ত হলে উপযুক্ত শাস্তি হবে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *