Dhupguri garment market fire breaks out guts 35 shops

ধূপগুড়ির কাপড়পট্টিতে ভস্মীভূত ৩৫টি দোকান

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের খবর

বহু চেষ্টা করেও সকাল পর্যন্ত আগুন (Dhupguri garment market fire) নিয়ন্ত্রণ আনতে পারেনি স্থানীয় দমকলবাহিনী। তাছাড়া জলের সমস্যা …

নিজস্ব সংবাদদাতা: শীতের রাতে ভয়াবহ আগুন। ব্যাপক ক্ষতি হলো উত্তরবঙ্গের এক মার্কেটে। গভীর রাতে বিধ্বংসী আগুন লাগলো ধূপগুড়ির কাপড়ের বাজারে। আগুনে ছাই হয়ে যায় সেখানকার ৩৫টি দোকান। তবে এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত হতাহতের খবর নেই। কয়েক কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করছেন সেই মার্কেটের ব্যবসায়ীরা। বহু চেষ্টা করেও সকাল পর্যন্ত আগুন (Dhupguri garment market fire) নিয়ন্ত্রণ আনতে পারেনি স্থানীয় দমকলবাহিনী। তাছাড়া জলের সমস্যা প্রধান হয়ে উঠেছে। পাশের জলাশয়গুলি বেআইনি ভাবে ভরাট হওয়াতে আগুন নেভানোর জল পাওয়া যাচ্ছে না। স্থানীয়রা সমবেত হয়ে আগুন নেভানোর কাজে হাত মেলান।

Dhupguri garment market fire breaks out guts 35 shops
Dhupguri garment market fire breaks out guts 35 shops

গতকাল বৃহস্পতিবার ভোর রাতে ধূপগুড়ি বাজারের থানা রোডের পাশে এক কাপড়পট্টিতে এই আগুন লাগে। রাস্তা দিয়ে গাড়িতে যাওয়ার সময় এক ব্যক্তি প্রথম আগুন দেখতে পান। তিনিই ধূপগুড়ি থানায় আগুনের খবর জানান। দ্রুত স্থানীয় বাসিন্দারা দমকলে খবর পাঠান। সেখানে প্রথমে দমকলের একটি ইঞ্জিন এসে পৌঁছয়। কিন্তু অল্প সময়ের মধ্যেই জল ফুরিয়ে যায়। গভীর সমস্যায় পড়েন দমকলকর্মীরা। এলাকাতে জল না পেয়ে পিএইচই-তে জল ভরতে চলে যায় ইঞ্জিন। কিন্তু সেখানকার ট্যাঙ্কেও জল মেলেনি। জলের খোঁজে আলাদা জায়গাতে যেতে হয়।

ফলে মার্কেটের আগুন দ্রুতগতিতে ছড়ায়। এরপর ফালাকাটা, ময়নাগুড়ি ও মালবাজার থেকে দু’টি করে দমকলের ইঞ্জিন এসে পৌঁছয়।

[ আরো পড়ুন ] শীলভদ্র দত্ত তৃণমূল দল ছাড়লেন – মুখ্যমন্ত্রীকে দলত্যাগের চিঠি

আগুন নেভানোর সাথে চোটে থাকে সম্বল উদ্ধারের কাজ। বিপদের মধ্যে কাজে নামেন একাধিক ব্যবসায়ীরা। মানুষের ভিড়ে ৩১ নম্বর জাতীয় সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়। দ্রুত সেই ঘটনাস্থলে আসেন ধূপগুড়ির তৃণমূল বিধায়ক মিতালি রায়। এরপর ধূপগুড়ি পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান রাজেশ কুমার ঘটনাস্থলে পৌঁছান। যদিও এই আগুন লাগার কারণ এখনও জানা যায়নি । তবে আগুন নেভাতে না পারার জন্য জলের অভাবকে দায়ী করেছেন ব্যবসায়ী ও স্থানীয়রা। শুধুমাত্র জলের অভাবে আগুন ঠিকভাবে নেভাতে পারলেন না দলকলকর্মীদের। আগুনে ছাই হয়ে গেলো কয়েক কোটি টাকার সম্পদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *