Haldia Petrochemicals to Invest Rs 29000 crore in Odisha

রাজ্যে জমি নেই তাই ওডিশায় পৌঁছালো হলদিয়া পেট্রোকেমিক্যালস – Haldia Petrochemicals to Invest Rs 29000 crore in Odisha

রাজ্যের খবর

প্রথম দফায় মোট ২৮,৭০০ কোটি টাকা লগ্নি করবে এইচপিএল। জানা গেছে এই লগ্নি গত এক বছরে ঘরোয়া বাজারে সব থেকে বড় একক লগ্নি।

এই তো সেদিন টাটাকে আমরা হাসি মুখে টাটা দিয়েছি আর সেই জমি বুনেছি সবুজ শস্য| খেলা, মেলা, ক্লাব, উৎসব নিয়ে আনন্দেই আছে আমাদের বাংলা| মাঝে মধ্যে বিনিয়োগ নিয়ে গ্রোবাল বাণিজ্যের সম্মেলন হয়| দেশি-বিদেশী শিল্পপতিদের আগমনে ও প্রতিশ্রুতিতে ভরে যায় বিনিয়োগের ভান্ডার| কিন্তু বাস্তবায়নে একটু দেরি হয়ে যায়| এই যেমন ২০১৬ সালে বেঙ্গল গ্লোবাল বিজনেস সামিটে হলদিয়ায় ২৫০০০ কোটি টাকা লগ্নি করে নতুন একটি বৃহৎ পরিশোধনাগার তৈরির প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন হলদিয়া পেট্রোকেমিক্যালস (এইচপিএল) তথা দ্য চ্যাটার্জি গোষ্ঠীর কর্ণধার পূর্ণেন্দু চ্যাটার্জি। তাদের সেই আধুনিক পরিশোধনাগারটি গড়ে তোলার জন্য প্রয়োজন ছিল ১৫০০ একর জমির। কিন্তু ঐটুকু জমি পাওয়াই গেলো না আমাদের রাজ্যে| আর তাই পাশের রাজ্য ওডিশায় ওই বিনিয়োগ করতে চলেছে এইচপিএল।

কয়েক মাস আগে ওডিশা সরকার আয়োজিত শিল্প সম্মেলনে যোগ দিয়ে সে রাজ্যে ৭০,০০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ একটি মেগা পেট্রো-রসায়ন কমপ্লেক্স গড়ে তোলার প্রস্তাব দেন পূর্ণেন্দু চ্যাটার্জি। ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়ক সরকারের কাছে লিখিত প্রস্তাব জমা পড়ে গত ১লা মার্চ। গতকাল ওডিশা মুখ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে একটি উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন ক্লিয়ারেন্স কমিটি এইচপিএল-এর মেগা পেট্রোকেমিক্যাল কমপ্লেক্স তৈরির প্রস্তাবে সবুজ সংকেত দেন। জানা গেছে এই প্রকল্পের জন্য প্রয়োজনীয় ২০০০ একর জমিও পাওয়া গেছে বালাসোরে, নির্মীয়মান সুবর্ণরেখা বন্দরের কাছে। ওখানেই ওড়িশা সরকারের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে ওই বন্দর তৈরি করছে টাটা স্টিল।

তবে ওডিশা সরকার সূত্রে জানা যাচ্ছে , প্রথম দফায় মোট ২৮,৭০০ কোটি টাকা লগ্নি করবে এইচপিএল। জানা গেছে এই লগ্নি গত এক বছরে ঘরোয়া বাজারে সব থেকে বড় একক লগ্নি। গত জানুয়ারি মাসে অন্ধ্রপ্রদেশের কাঁকিনাড়া বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলেও প্রায় ৭০,০০০ কোটি টাকা লগ্নিতে একটি পেট্রোরসায়ন প্রকল্প গড়ে তোলার জন্য মউ স্বাক্ষর করেন পূর্ণেন্দু চ্যাটার্জি। তবে আশা করা হচ্ছে, জমি পাওয়ার চার বছরের মধ্যে এই প্রকল্প শেষ করা হবে। আমরা অপেক্ষা করি আর একটা বাণিজ্য সম্মেলনের জন্য| সেই সময়ে একটু জমি খোঁজার চেষ্টা করি|

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *