Mamata Banerjee govt 608 new schemes for minority development in West Bengal

রাজ্যে সংখ্যালঘু উন্নয়নে নতুন ৬০৮টি প্রকল্প আনলেন মুখ্যমন্ত্রী

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের খবর

রাজ্যে নতুন ৬০৮টি প্রকল্প আনলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। তিনি জানিয়েছেন,দেশের সকল রাজ্যের তুলনায় সংখ্যালঘু উন্নয়নে (Minority development) এগিয়ে …

নিজস্ব সংবাদদাতা: সামনেই বিধানসভা নির্বাচেন। বিপক্ষ শিবির গুটি সাজাতে পথে নেমেছে। ভাইরাসের চাপ থাকলেও বসে নেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। ভোট টানার অঙ্ক তৈরী করে ফেলেছেন। রাজ্যে নতুন ৬০৮টি প্রকল্প আনলেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। তিনি জানিয়েছেন,দেশের সকল রাজ্যের তুলনায় সংখ্যালঘু উন্নয়নে (Minority development) এগিয়ে আছে বাংলা।

কেন্দ্রীয় সরকার সম্প্রতি রাজ্যকে জানিয়েছে, তফসিলি উপজাতির পড়ুয়াদের জন্য একলব্য স্কুলগুলির ওপর নজরদারি করবে কেন্দ্র। কেন্দ্রের কাছে কিছুতেই মাথা নত করবে না রাজ্য। রাজ্যের সব ক্ষমতা কেন্দ্র দখল করতে পারবে না।

Mamata Banerjee govt 608 new schemes for minority development in West Bengal
Mamata Banerjee govt 608 new schemes for minority development in West Bengal

তিনি জানান, “এই রাজ্যে সংখ্যালঘু উন্নয়নে বরাদ্দ অনেকটা বেড়েছে। এ ক্ষেত্রে মোট ৪ হাজার ১৬ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। তবে এরমধ্যে ২ কোটি ৩৮ লক্ষ টাকা বৃত্তি বাবদ দেওয়া হয়েছে। কমবেশি ৮৫ হাজার মানুষ হজে গিয়েছেন। প্রত্যেক জেলায় সংখ্যালঘু ভবন তৈরি হয়েছে। এছাড়া ৫৫১ কোটি টাকা খরচ করে আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন ক্যাম্পাস তৈরি হয়েছে।”

[ আরো পড়ুন ] আমফানের দু্র্নীতি থামাতে পঞ্চায়েত স্তরে কমিটি

তিনি নবান্ন থেকে সংখ্যালঘু উন্নয়ন দপ্তরের মোট ৬০৮টি পরিকাঠামো ভিত্তিক প্রকল্পের উদ্বোধন করেন। এই প্রকল্পের জন্য খরচ ধরা হয়েছে ৯৪৩৫.‌২৫ লক্ষ টাকা। এগুয়লো বাদে ২৪টি নতুন প্রকল্পের শিলান্যাস করেন। জানা যাচ্ছে, এগুলির জন্য খরচ হবে ১৪৪১.‌৫০ লক্ষ টাকা।

[ আরো পড়ুন ] এখনই ভোট হলে জিতবে তৃণমূল শুরু হয়েছে জোটের অঙ্ক

রাজ্য বিজেপির সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু জানান, “ আসলে এটা নতুন কিছু দাবি নয়। উনি আগেই বলেছেন তিনি দুধ দেওয়া গরুর লাথি খেতে তৈরি। নির্বাচন আসলেই সব ঘোষণা শুরু হয়। তবে কেন্দ্রের সঙ্গে তুলনা করা ঠিক নয়। কেন্দ্র কখনোই হিন্দু বা মুসলমানের জন্য আলাদা উন্নয়নের কথা ভাবে না।” যদিও মমতার প্রকল্পে কলেজের প্রেক্ষাগৃহ, গ্রন্থাগার, স্কুল শ্রেণিকক্ষ, হস্টেল ও কমিউনিটি সেন্টার তৈরির বিষয় আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *