weather-report-for-north-and-south-bengal-today

উত্তরবঙ্গে বৃষ্টি আর দক্ষিণবঙ্গে কালবৈশাখীর পূর্বাভাস

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের খবর

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে জানা যাচ্ছে (Weather Report), বুধবার থেকে আরও কিছু জায়গায় কালবৈশাখীর পরিস্থিতি ভয়াল হবে। তবে কোথায়, কখন এবং …

রাজ্যের আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে জানা যাচ্ছে (Weather Report), বুধবার থেকে আরও কিছু জায়গায় কালবৈশাখীর পরিস্থিতি ভয়াল হবে। তবে কোথায়, কখন এবং কত কিমি বেগে ঝড় হবে, তা এখনই বলা সম্ভব নয়। সকলেরই জানা কালবৈশাখীর মেঘ হঠাৎই সৃষ্টি হয়। তাই এক্ষেত্রে আবহাওয়ার ভবিষ্যৎবানির (Weather Forecast) বদলে ‘Nowcast’ দেন আবহবিদরা। যা আবহাওয়া দপ্তরের ওয়েবসাইটে তৎক্ষণাৎ পাওয়া যায়।

চলে গেছে আম্ফান ঘূর্ণিঝড়, কিন্তু রেশ যেন কাটতেই চাইছেই না। ঝড়ের সাথেই বৃষ্টির প্রকোপ। উত্তরবঙ্গে প্রচন্ড বৃষ্টিপাত এর সাথে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতেও কালবৈশাখীর সম্ভাবনা বাড়ছে। শক্তিশালী দক্ষিনা-পশ্চিমি বাতাসের প্রভাবে রবিবার থেকেই অবিরাম বৃষ্টি পড়ছে উত্তরের জেলাগুলিতে। আবার কোথাও কোথাও ভারী বৃষ্টিপাতও হয়েছে।

Rain in Darjeeling
Rain in Darjeeling

বৃষ্টি চলবে আগামী ৪৮ ঘণ্টাতেও

সূত্রের খবর অনুযায়ী, এখনো বৃষ্টি চলবে আগামী ৪৮ ঘণ্টাতেও। সোমবার বীরভূম ও মালদা এই দুই জেলাতে ব্যাপক ঝড়-বৃষ্টি হয়। কালবৈশাখীর দাপটে মালদার রপ্তানিকৃত আমের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে স্থানীয় দু’জনের। বীরভূম জেলার সিউড়ি গ্রামে ঝড়ের দাপটে বিদ্যুতের খুঁটি গুড়িয়ে গিয়েছে। বেশ কিছু বাড়ির চাল উড়ে গিয়েছে।

আম্ফান সাইক্লোন -এর রেশ কাটতে আরও ৯০ দিন লাগবেআরও জানতে ক্লিক করুন …

গ্রামে বিদ্যুৎ পরিষেবা

গ্রামে গ্রামে বিদ্যুৎ পরিষেবার বিন্দুমাত্র চিহ্ন নেই। স্থানীয়দের মতে, বিদ্যুতে বেসরকারিকরণ করে জনগণের কোনো লাভ হয়নি, পরিষেবা সেই আগের মতোই আছে । বিদ্যুৎ দপ্তর অবশ্য জানিয়েছে, ক্ষয় ক্ষতির পরিমান ব্যাপক হওয়ায় সময় লাগবে। জানা যাচ্ছে, কলকাতা শহরের তাপমাত্রা ৩৩-৩৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশপাশেই থাকবে। তাপপ্রবাহের আশঙ্কা নেই রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চলেও।

এই তীব্র গরম থেকে বাঁচার উপায় – আরও জানতে ক্লিক করুন …

বিশেষজ্ঞ আবহবিদ বলেন

আবহাওয়া দপ্তরের বিশেষজ্ঞ আবহবিদ বলেন, ‘আমরা ধীরে ধীরে বর্ষার দিকে এগোচ্ছি। তাই বায়ুপ্রবাহে বদল আসছে। দক্ষিণ-পশ্চিম দিক থেকে জোরে দমকা বাতাস আগামী কয়েক দিন বজায় থাকবে। এতে বৃষ্টিপাত মূলত উত্তরবঙ্গ ও উত্তর-পূর্ব ভারতেই হবে।’ বুধবার নাগাদ দক্ষিণবঙ্গের কাছে একটি নিম্নচাপ অক্ষরেখা বা ঘূর্ণাবর্ত সৃষ্টি হতে পারে। তাই কালবৈশাখীর সম্ভাবনা বাড়বে। আবার কালবৈশাখী বুধবারে শক্তিশালী হতেও পারে। প্রবল গরম পড়ার আশঙ্কা আপাতত কমই থাকছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *