Weather Can Be Worst in Bengal

আবহাওয়ার আরও অবনতি ঘটিয়ে জোরে আসছে ঝড় ও বৃষ্টি – Weather Can Be Worst in Bengal

পশ্চিমবঙ্গ

একটু গরম পড়ার আগেই তীব্র কালবৈশাখির দাপটে তছনছ হয়ে গিয়েছে দক্ষিণবঙ্গের অনেকগুলি এলাকা।

একেবারেই চেনা নিয়মের বিপরীতে চলেছে বাংলার আবহাওয়া| নীল দিগন্তে যেখানে ফুলের মালা গাঁথবে দখিনা হাওয়া, সেখানে শ্রাবনের ধারা চারপাশকে ভাসিয়ে দিতে তৈরী| শীত, গ্রীষ্ম, বর্ষা, বসন্ত মিলে-মিশে একাকার হয়ে উঠেছে আমাদের রাজ্যে| আর এর জন্য সবথেকে সমস্যায় পড়েছে উচ্চমাধ্যমিকের পরীক্ষার্থীরা| ঝড়-জলে ভিজে, শরীর সামলে, সঠিক সময়ে পরীক্ষা সেন্টারে পৌঁছানোই দুষ্কর হয়ে উঠেছে|

একটু গরম পড়ার আগেই তীব্র কালবৈশাখির দাপটে তছনছ হয়ে গিয়েছে দক্ষিণবঙ্গের অনেকগুলি এলাকা। গত সোমবার সন্ধ্যার পর থেকে দফায় দফায় ঝড় ও সঙ্গে বজ্রবিদ্যুত্সহ বৃষ্টি নেমেছে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায়। অসময়ের এই ঝড়-বৃষ্টিতে প্রাণও গিয়েছে কিছু মানুষের। তবে এখনই বিপদ কাটছে না আকাশের। কারণ, আবহাওয়ার পূর্বাভাস বলছে,আগামীতে আরও জোরে ঝড় আসছে দক্ষিণবঙ্গের একাংশে।

আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস অনুসারে রাঢ়বাংলায় ও বিস্তীর্ণ গাঙ্গেয় উপত্যকার একাংশে তুমুল ঝড়বৃষ্টি হতে পারে। জানা গেছে, আগামী ৪৮ ঘণ্টায় ৮০ কিলোমিটার বেগে বয়ে যেতে পারে ঝড়। তবে সব থেকে বেশি ঝড় হতে পারে মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, পূর্ব বর্ধমান, নদিয়া ও উত্তর ২৪ পরগনার একাংশে।

আশা করা যাচ্ছে, ভারী বৃষ্টি হতে পারে কোচবিহার, উত্তর দিনাজপুর, দক্ষিণ দিনাজপুর, মালদহ, পশ্চিম বর্ধমান, কলকাতা, হাওড়া, হুগলির একাংশ উত্তর ২৪ পরগনা ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার একাংশে। এই সমস্ত এলাকায় ঝড়ের সঙ্গে হতে পারে তীব্র বৃষ্টিপাত। ফলে প্রাণহানির আশঙ্কা থাকায় আগামী কয়েকদিন ঝড়বৃষ্টির সময় নিরাপদ স্থানে থাকার পরামর্শ দিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর।

তবে মধ্যরাত থেকে ভোরের মধ্যে কলকাতার উপর দিয়ে দু’বার বড়সড়ো কালবৈশাখী বয়ে গিয়েছে। সেসময় ঝড়ের গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ৪৪ থেকে ৫৫ কিলোমিটারের মধ্যে| এর ফলে যেমন গাছ ভেঙে পড়েছে, তেমনই পাঁচিল, রাস্তার ধারে ল্যাম্প পোস্ট, হোর্ডিং, ফেস্টুন ভেঙেও বিপদ ঘটেছে।

আজথেকে আবার ঝোড়ো বাতাসও বইতে পারে। সাথে বেশ কিছু অঞ্চলে শিলাবৃষ্টির সম্ভাবনা থাকছে। বুধবার সিকিম দার্জিলিংয়ের উঁচু অঞ্চলে তুষারপাত হতে পারে। বাংলার অনেক জায়গায়, মাঠের ফসল নষ্ট হয়েছে| মাটির বাড়িও ভেঙে গেছে| জন্মের কয়েকটা দিন সাবধানেই থাকতে হবে|

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *