West Bengal Govt Started to Buy Paddy from Farmer Through Annadatri App

Annadatri App: আজ থেকেই ‘অন্নদাত্রী’ অ্যাপে ধান কিনবে সরকার

গ্যাজেট পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের খবর

কয়েকদিন আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নবান্নে ঘোষণা করেন অন্নদাত্রী অ্যাপের (Annadatri App) মাধ্যমে চাষিদের কাছ থেকে সরাসরি ধান কেনা হবে।

ঘরে বাইরে এখন ঘর সংকট। স্বাস্থ্যের সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে খাদ্যের সমস্যা। লকডাউনের ফলে মানুষ গৃহবন্দী। সকল কাজের ক্ষেত্র থেমে গেছে। আগামীতে রাজ্যবাসীর খাদ্য সমস্যা থেকে রেহাই দিতে আগাম ব্যবস্থা নিচ্ছে সরকার। আজ পয়লা মে থেকে জোরকদমে চাষিদের কাছ থেকে ধান কেনার অভিযান শুরু করতে চলেছে খাদ্য দপ্তর। কয়েকদিন আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নবান্নে ঘোষণা করেন অন্নদাত্রী অ্যাপের (Annadatri App) মাধ্যমে চাষিদের কাছ থেকে সরাসরি ধান কেনা হবে।

উইকিপিডিয়ায় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী দিলীপ ঘোষ! – আরও জানতে ক্লিক করুন …

কি ভাবে কেনা হবে এই ধান ?

আসলে এই মুহূর্তে করোনা সংক্রমণ নিয়ে আশঙ্কা থেকে চাষিরা সরাসরি সরকারি ক্রয় কেন্দ্রে এসে ধান বিক্রি করতে ভয় পেতে পারেন। তাছাড়া সংক্রমণের একটা মারাত্মক ভয় থেকেই যাচ্ছে। এই কারণে বিকল্প ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে অ্যাপ মারফত ধান কেনার। বিশেষ টোল ফ্রি নম্বরে ফোন করলেও চাষির কাছে গিয়ে ধান কেনা হবে জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। বিডিও অফিসের মাধ্যমে ওই ধান কেনা হবে। বিডিও অফিসের এক আধিকারিক চেক সঙ্গে করে নিয়ে যাবেন। ধান কেনার পর চেকের মাধ্যমে দাম মিটিয়ে দেওয়া হবে।

টিকিয়াপাড়া কাণ্ডে গ্রেপ্তার ১৪ জন – আরও জানতে ক্লিক করুন …

কেন কেনা হচ্ছে এই বিপুল পরিমান ধান ?

চাষির কাছে গিয়ে ধান কিনতে ছোট ও বড় পণ্যবাহী গাড়ির ব্যবস্থা করতে হচ্ছে। অ্যাপের মাধ্যমে ধান বিক্রি করতে ইচ্ছুক চাষিকে তাঁর নাম, গ্রাম ও ব্লকের নাম, মোবাইল নম্বর প্রভৃতি জানাতে হবে। আগামী দিনের জন্য রেশন দোকান, মিড ডে মিল প্রকল্প, অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র ও সাধারণ ত্রাণ খাতে চালের চাহিদা মেটাতে সরকারি উদ্যোগে আরও ধান সংগ্রহ করতে হবে। রাজ্যের খাদ্য দফতর সূত্রে খবর, মোট ৫২ লক্ষ মেট্রিক টন ধান কেনা হবে চাষীদের থেকে। আগামী কয়েক মাসের জন্য রেশন দোকান, মিড ডে মিল প্রকল্প, অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র ও সাধারণ ত্রাণ হিসাবে চাল দিতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *