West Bengal struck by 96 kmph nor'wester called kalbaishakhi

৯৬ কিমির দুরন্ত কালবৈশাখী ২ জনের প্রাণ নিলো

কলকাতা পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের খবর

বুধবারের কালবৈশাখী (Kalbaishakhi) ঝড় ১০০ কিমি বেগ অতিক্রম করেনি। আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, গতকালের ঝড়ের সর্বোচ্চ বেগ ছিল ঘণ্টায় ৯৬ …

বৈশাখ মাস চলে গিয়ে জামাই ষষ্ঠীর সময় এসে গেলো। তবুও প্রকৃতির প্রকোপ যেন থামতেই চাইছে না। এক সপ্তাহ আগে পশ্চিমবঙ্গে আম্ফান ঝড়ের সর্বোচ্চ গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ১৩৩ কিমি। গতকাল বুধবারের কালবৈশাখী (Kalbaishakhi) ঝড় ১০০ কিমি বেগ অতিক্রম করেনি। আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, গতকালের ঝড়ের সর্বোচ্চ বেগ ছিল ঘণ্টায় ৯৬ কিমি। বিগত ৫ বছরে এমন গতিবেগের কালবৈশাখী কখনো দেখা যায়নি।

আম্ফান ঝড়কবলিত ও বন্যায় বিপর্যস্ত এলাকার মানুষ ফের বিপদের কবলে। কলকাতা সহ উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গে পুনরায় গাছ ও ইলেক্ট্রিকের খুঁটি ভেঙে পড়েছে । বিপদ যেন পিছু ছাড়তেই চাইছে না। হুগলির আরামবাগে গাছ পড়ে এ দিন লালমোহন রায়গুপ্ত (৪০) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। দু’জন আহত। দুর্গাপুরে বাজ পড়ে এক জনের মৃত্যু হয়। আর কোনো মৃত্যুর খবর আজ শোক পর্যন্ত এখনো পাওয়া যায় নি ।

West Bengal struck by 96 kmph nor'wester called kalbaishakhi
West Bengal struck by 96 kmph nor’wester called kalbaishakhi

জানা যাচ্ছে, বাজে মৃতের নাম গোপাল যাদব (৪০)। তার বাড়ি মাধাইপুর। আলিপুর আবহাওয়া অফিসের অধিকর্তা গণেশকুমার দাস বলেন, বিহার থেকে উত্তর-পূর্ব ভারত পর্যন্ত নিম্নচাপ অক্ষরেখা ছিল। সেটি দক্ষিণবঙ্গের দিকে সরেছে। অক্ষরেখার টানে জলীয় বাষ্প ঢুকেছে এবং বজ্রগর্ভ মেঘপুঞ্জ তৈরি করেছে। আবহবিজ্ঞানীরা জানান, এ দিন গাঙ্গেয় বঙ্গের উপরে সার দিয়ে মেঘপুঞ্জ তৈরি হয়েছিল।

after-effect-of-cyclone-amphan

আম্ফান সাইক্লোন -এর রেশ কাটতে আরও ৯০ দিন লাগবে

উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বাগদায় প্রায় ৪০ মিনিট ঝড় হয়। গণেশকুমার দাস বলেন, ‘‘আগামী কয়েক দিন এমন পরিস্থিতি চলতে পারে।’’ আজ রাতেও রাজ্যের উপকূলবর্তী এলাকায় ঝড়ের সতর্কবার্তা দেওয়া হয়েছে। কাশীপুর রোড এবং চিৎপুর লকগেট উড়ালপুলের সংযোগস্থলে বাতিস্তম্ভ ভেঙে পড়ে। বাসন্তী হাইওয়েতেও গাছ পড়েছে।

মাছি তাড়ানোর সহজ প্রাকৃতিক উপায় – আরও জানতে ক্লিক করুন …

কলকাতার লালবাজার থানা জানিয়েছে, এ দিন ঝড়ে কলকাতার রাসবিহারী অ্যাভিনিউ, শরৎ বসু রোড এবং লেক রোডের সংযোগস্থল, বেলেঘাটা মেন রোড, চাউল পট্টি রোড, নারকেলডাঙা মেন রোড, রাজা বসন্ত রায় রোড-সহ কয়েকটি জায়গায় ফের গাছ ভেঙেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *