PNB reports over Rs 3500 crore DHFL loan as fraud

PNB-তে আবার ৩,৬৮৮ কোটি টাকার ঋণ কেলেঙ্কারি

ব্যবসা

এক নথিতে ব্যাংকের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, দেওয়ান হাউজিং ফাইন্যান্স লিমিটেড-কে ৩,৬৮৮.৫৮ কোটি টাকা ঋণ (DHFL loan) দিয়েছিল এই ব্যাংকটি।

নিজস্ব সংবাদদাতা: পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক আর ঋণ কেলেঙ্কারি, সমর্থক শব্দ হয়ে দাঁড়িয়েছে। মোদী জামানাতে এই ব্যাংক ঋণ খেলাপির সংখ্যা বেড়েই চলেছে। সব কিছু জানতে ও বুঝতে অনেক দেরি হয়। ব্যাস, দেশের সীমানা পেরিয়ে তারা মজবুত প্রবাসী হয়ে ঘুরে বেড়ায়। সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকারও বেশি ঋণ দিয়ে ফেরত পায়নি এই বিস্ময়ের ব্যাংক । রিজার্ভ ব্যাংকে জমা দেওয়া এক নথিতে ব্যাংকের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, দেওয়ান হাউজিং ফাইন্যান্স লিমিটেড-কে ৩,৬৮৮.৫৮ কোটি টাকা ঋণ (DHFL loan) দিয়েছিল এই ব্যাংকটি।

PNB reports over Rs 3500 crore DHFL loan as fraud
PNB reports over Rs 3500 crore DHFL loan as fraud

সেই টাকার কোনো হদিস নেই। আসলে এই মুহূর্তে দেওয়ান হাউজিং ফাইন্যান্সকে দেউলিয়া ঘোষণার প্রক্রিয়া চলছে। তাই সেই ঋণের অর্থ ফেরত পাওয়া অনেকটাই অসম্ভব। মুম্বইয়ের ‘একটি লার্জ কর্পোরেট শাখায়’ HDFL-এর একটি নন-পারফর্মিং অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে কয়েক হাজার কোটি টাকার এই দুর্নীতি হয়েছে। গত তিন বছরের মধ্যে এই ব্যতিক্রমী পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংকে এই নিয়ে চতুর্থ বার বড়োরকমের আর্থিক কেলেঙ্কারির সামনে এল।

[ আরও পড়ুন ] এশিয়ার সবথেকে বড় সোলার প্লান্ট উদ্বোধনে প্রধানমন্ত্রী

হীরে ব্যবসায়ী মেহুল চোকসি এবং নীরব মোদি পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক–‌কে ঠকিয়ে মাত্র ৫০০০ কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছিল। কিন্তু সেই জালিয়াতির অঙ্ক ৩১ হাজার কোটি টাকা। ভারতের ইতিহাসে এখনও পর্যন্ত বৃহত্তম আর্থিক কেলেঙ্কারি। তবু খোলা মাঠের ডাকাতি থামানো যায় নি। সবটাই একটা অলিখিত ও প্রকাশ্য অংকের সূত্রে বাধা থাকে। কোনো সাজা হওয়ার বিষয় এখানে নেই।

প্রয়োজন হলে আবার কিছু টাকা ছাপিয়ে নিলেই হবে। দেশের অন্যতম বৃহৎ নন-ব্যাংকিং ফাইনান্সিয়াল কোম্পানি DHFL-এর ঋণের পরিমাণ প্রায় ১ লক্ষ কোটি টাকা। ঋণদাতাদের বকেয়া মেটাতে তারা সম্পূর্ণ ব্যর্থ। কে যেন বলেছিলো, ব্যর্থতা থেকেই সাফল্য উঁকি দেয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *