Katrina Kaif and Disha Patani holidaying in Maldives

মালদ্বীপে উত্তাপ ছড়াচ্ছেন ক্যাটরিনা থেকে দিশা পাটানি

বিনোদন

ক্যাটরিনা কাইফ থেকে ফারহান আখতার ও দিশা পাটানি, Katrina Kaif and Disha Patani) পাড়ি দিচ্ছেন মালদ্বীপে। মনোরম নৈসর্গিক …

নিজস্ব সংবাদদাতা: মুম্বাইয়ের সেলেবরা একটু আলাদা জীবন কাটাতে অভ্যস্থ। শুটিংয়ের সিপিএম এখন অনেকটাই কম। জনপ্রিয়তাকে ধরে রাখার অনেক উপকরণ আছে সামনে। জীবনের চেনা ছন্দে ফিরতে শুরু করেছেন অনেকে। আনলক পর্ব থেকে ক্লান্তি, একঘেয়েমি কাটাতে পাড়ি দিচ্ছেন বিদেশে। সেই কারণেই বলিউড সেলেবদের অন্যতম পছন্দের জায়গা মালদ্বীপ। তাই ক্যাটরিনা কাইফ থেকে ফারহান আখতার ও দিশা পাটানি, (Katrina Kaif and Disha Patani) পাড়ি দিচ্ছেন মালদ্বীপে। মনোরম নৈসর্গিক সৈকত শহরে যাওয়ার পর প্রকাশ্যে আসছে তাদের নানা উত্তাপের ছবি। বলিউডের সেলেব অভিনেত্রীকে বিকিনি পরেই নানা পোজ দিতে দেখা যাচ্ছে।

Katrina Kaif and Disha Patani holidaying in Maldives
Katrina Kaif and Disha Patani holidaying in Maldives

ক্যাটরিনা বেশ সাহসী হয়ে মালদ্বীপের বিচে সূর্যস্নান করছেন। উৎসবের মরসুমে তিনি চলে গিয়েছিলেন মালদ্বীপে। সেখানে বিকিনিতে ছবি তুলে আলোড়ন তুলে দিয়েছেন ফ্যানদের মধ্যে। সেই ছবি ভাইরাল হয়ে পড়েছে দ্রুত। সেই অসাধারণ ছবি নিচে ক্যাপশনে তিনি লিখেদিয়েছেন, ‘প্যারাডাইস ফাউন্ড’। কমেন্ট সেকশনে বিয়ের প্রপোজাল দিয়ে বসছেন নেটিজেনরা। ক্যাটরিনা ও রণবীরের সম্পর্ক বিচ্ছেদের পর, বিকি কৌশলের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছেন ক্যাটরিনা। তবে সেই বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেননি দুজনের কেউ। তবে ক্যাটরিনা স্পষ্ট ভাবে জানিয়েছেন, উপযুক্ত সময় এলে দুজনের সম্পর্ক প্রকাশ্যে আনবেন।

[ আরও পড়ুন ] ৯৩তম অস্কারে মনোনীত বিতর্কিত ‘জাল্লিকাট্টু’

এর সাথে দিশা পাটানিও কম যান না। তার মালদ্বীপের ছবি প্রকাশ্যেই আসতেই ঝড় ওঠে ইন্টারনেটে। বিকিনিতে দিশাকে দেখে ভক্তরা উচ্ছ্বসিত হয়ে ওঠেন। বিয়ের পর স্বামী গৌতম কিচলুর সঙ্গে মালদ্বীপে আসেন কাজল আগরওয়াল। সেই ছবিও চরম উত্তাপ ছড়িয়েছে। খুব সম্প্রতি মালদ্বীপে যান নেহা ধুপিয়া। অঙ্গদ বেদী ও কন্যা মেহরের সঙ্গে একাধিক ছবির পাশাপাশি সাহসী পোশাকে দেখা যায় এই মডেল অভিনেত্রীকে। কিছুদিন আগে তাপসী পান্নু,রকুল প্রীত সিং,টাইগার শ্রফ,দিশা পাটানীর মতো অভিনেতা-অভিনেত্রীরা মালদ্বীপে ছুটি কাটাতে যান। সব মিলিয়ে মালদ্বীপ মেতে উঠেছে, বলিউডের অচেনা সৌন্দর্যের উত্তাপে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *