Rhea Chakraborty records statement with ED along with her brother

রিয়ার কিছুই মনে পড়ছে না! ফোন আর জীবনে অসঙ্গতি

বিনোদন

প্রায় সাড়ে ৮ ঘণ্টা জেরা করা হয়েছে ইডির দপ্তরে। সম্পত্তির দলিল ও প্রয়োজনীয় তথ্য ছাড়া ইডির দপ্তরে তিনি (Rhea Chakraborty records statement) …

নিজস্ব সংবাদদাতা: সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর বিষয়টি নিয়ে দ্রুত কাজ করছেন সিবিআই। গোপন ডেরা থেকে বাইরে এসেছেন বান্ধবী অভিনেত্রী রিয়া। প্রায় সাড়ে ৮ ঘণ্টা জেরা করা হয়েছে ইডির দপ্তরে। সম্পত্তির দলিল ও প্রয়োজনীয় তথ্য ছাড়া ইডির দপ্তরে তিনি (Rhea Chakraborty records statement) পৌঁছান। ইডির আগাম নির্দেশিকা অমান্য করেছেন। কারণ জানতেই রিয়া জানান, “তিনি একেবারেই ভুলে গিয়েছেন কোথায় ফ্ল্যাট-বাড়ির কাগজপত্র রেখেছেন।” এই উত্তর একেবারেই ভাল চোখে দেখছেন না কেন্দ্রীয় তদন্তকারীরা।

Rhea Chakraborty records statement with ED along with her brother
Rhea Chakraborty records statement with ED along with her brother

২০১৮-১৯ সালে রিয়া ১৪ লাখ টাকা রোজগার করেন। কিন্তু খরচ করেছেন ৬৫ লাখ টাকা। অভিনেত্রীর নামে মুম্বইয়ের অভিজাত এলাকায় দুটো ফ্ল্যাট আছে। মুম্বইয়ের খারে এলাকাতে ৮৫ লাখ টাকা ও ৬০ লক্ষ টাকার ফ্লাট আছে। এই তাকাই উৎস তার মনে পড়ছে না। গতবছর রিয়ার অ্যাকাউন্টে ছিল ১০ লাখ টাকা। পরে সেই তা দাঁড়ায় ১৪ লাখ। সুশান্তের দু’টি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে বড় অঙ্কের টাকা যায় রিয়ার অ্যাকাউন্টে। মুম্বইয়ের অভিজাত এলাকায় যে বাড়ি দু’টি কিনেছিলেন।

[ আরো পড়ুন ] সুশান্তের মৃত্যু তদন্তে সিবিআই – অভিযুক্ত রিয়া চক্রবর্তী সহ ৭

সুশান্তের বাড়ির পরিচারক, ম্যানেজার, ড্রাইভার, বন্ধু ও পরিবারের সকলে জানান, সুশান্তকে হাতের মুঠোয় রাখেন এই রিয়া। সুশান্তের ক্রেডিট কার্ডেই শপিং, বিলাসবহুল গাড়ি ও ইউরোপ ভ্রমণ সবই সাবলীল ভাবে সেরেছেন। রিয়ার এক বছরের কললিস্ট যথেষ্ট সন্দেহজনক । সুশান্তের সঙ্গে গোটা বছরে মাত্র ১৪৫ বার ফোন করেছেন। স্যামুয়েল মিরান্ডার সঙ্গে ফোন ২৮৭ বার ও ম্যানেজার শ্রুতি মোদির সঙ্গে ৭৯১ বার। গোটা বছরে মহেশ ভাট’কে ১৬ বার ও নিজের ভাই’কে ১০৬৯ বার ফোন করেন। রিয়ার ভাই সৌহিক চক্রবর্তী ও অন্য ২ জনকে জেরা করা হয়েছে।

[ আরো পড়ুন ] অজয় দেবগন ও ঋতিক রোশন ওটিটি প্ল্যাটফর্মে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *