আকাশ অবরোধ করে দুর্ভোগ বাড়ালো ইন্ডিগো

আকাশ অবরোধ করে দুর্ভোগ বাড়ালো ইন্ডিগো

গ্যাজেট ভারতবর্ষ

ফিফ্থ জেনারেশনের জীবনের গতিময়তার সঙ্গে বাড়িয়ে দিয়েছে আকাশ পথের পরিষেবা|

চেনা রাস্তা- চেনা পথ| চেনা পথে অবরোধ| ফিফ্থ জেনারেশনের জীবনের গতিময়তার সঙ্গে বাড়িয়ে দিয়েছে আকাশ পথের পরিষেবা| মেঘকে আদর করতে করতে নিশ্চিন্তে পৌঁছে যাওয়া যায় নিজের গন্তব্যে| কিন্তু মাটির পথের জ্যাম এবার গিয়ে পৌছালো ভারতের আকাশে| সৌজন্যে ইন্ডিগো বিমান পরিষেবা| অফিস বলছে তাদের বিমানচালকের সংখ্যা অনেক কম। তাই নিয়ম করে প্রতি দিনই বাতিল করতে হচ্ছে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ বিমান। বিমানচালকের সংখ্যা কম। তাই প্রতি দিনই বাতিল করতে হচ্ছে একাধিক বিমান। ফলে স্বাভাবিক পরিষেবা এতে ব্যাহত হয়েছে আর দুর্ভোগে পড়েছেন অগণিত আকাশ যাত্রীরা।

গত সোমবার দেশ জুড়ে বাতিল করা হয়েছিল ইন্ডিগোর ৩২টি উড়ান। মঙ্গলবারও এই ছবিটা একই থাকলো। মঙ্গলবার দেশের বিভিন্ন বিমানবন্দর থেকে মোট ৩০টি উড়াল বাতিল করেছে ইন্ডিগো। অবাক করে যাত্রীরা জানাচ্ছে, শেষ মুহূর্তে নির্ধারিত দামের থেকে বেশি টাকা দিয়ে ইন্ডিগো-র বিমানের টিকিট কিনতে বাধ্য করেছেন তাঁদের। অতি বিনয়ের সাথে ইন্ডিগো কর্তৃপক্ষও স্বীকার করেছেন, আপাতত এই দুর্ভোগ আরও কিছু দিন চলবে। চলতেই থাকবে| বিমানচালকের সংখ্যা কম থাকা ছাড়াও গত কয়েক দিনে রাজধানী এবং তাঁর আশপাশের অঞ্চলের আবহাওয়া খারাপ| শিলাবৃষ্টি এবং প্রবল বৃষ্টিপাতের জন্য বিমানের স্বাভাবিক পরিষেবা ব্যাহত হচ্ছে বলে দাবি করেছেন তাঁরা।

যদিও আজ, বুধবার ইন্ডিগো জানিয়েছে, পরিষেবা ব্যবস্থা সচল রাখতে আগামী দিনগুলিতে তাদের উড়ানসূচিতে সামান্য বদল করা হবে। এতে প্রতি দিন ৩০টি উড়ানের সময়সূচিতে বদল হবে। দেশের বিভিন্ন বিমানবন্দরের মধ্যে মঙ্গলবার ইন্ডিগো-র বেশির ভাগ উড়ান বাতিল করা হয়েছে কলকাতা, হায়দরাবাদ এবং চেন্নাইয়ের বিমানবন্দর থেকে। এর মধ্যে শুধুমাত্র কলকাতা থেকে আটটি, হায়দরাবাদ থেকে পাঁচটি এবং চেন্নাই ও বেঙ্গালুরু থেকে চারটি করে উড়ান পাখা মেলে আকাশে উড়ে যায় নি ।

বিমান পরিষেবা নিয়ে যাত্রীদের ক্ষোভের কথা অজানা নয় ইন্ডিগো কর্তৃপক্ষের। তাঁদের দাবি, যাত্রীদের অসুবিধার কথা মাথায় রেখেই উড়ানের সময়সূচিতে অদলবদলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে| এসব কথা নোটিশ দিয়ে অনেক আগে থেকে জানিয়ে দেওয়া হচ্ছে। সংস্থার এক শীর্ষ কর্তা জানিয়েছেন, গোটা বিষয়টি দেশের বিমান নিয়ন্ত্রক সংস্থা ডিজিসি জানেন । কর্তারা জানলেই হবে| আমজনতা তো আপনাদের সাওয়ারী নন| তাই সময়ের দিকে তাকিয়ে,, যারা বেশি অর্থ দিয়ে আপনাদের পরিষেবা খোঁজেন, তারা তো এবার একটু ভাববে|

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *