Indian Govt Approves Facebook Inc Application for WhatsApp Pay India

WhatsApp Pay India: এবার টাকা পাঠান হোয়াটসঅ্যাপে

গ্যাজেট

কেন্দ্রীয় সরকার ও ব্যাংকের প্রয়োজনীয় অনুমতি পেয়ে গিয়েছে ফেসবুকের এই পেমেন্ট অ্যাপ, যার নাম হতে চলেছে ‘হোয়াটসঅ্যাপ পে’ (WhatsApp Pay India)।

ডিজিটাল ভারতের ডিজিটাল পদ্ধতি, এ নিয়ে সরকারও যেন কোমর বেঁধে নেমে পড়েছে ।
একের পর এক কোম্পানিকে সুযোগ করে দেওয়া হচ্ছে দ্রুত ডিজিটাল ভারত গড়ার লক্ষ্যে । প্রায় দু’বছর আলোচনার পর প্রাথমিক সম্মতি পেল হোয়াটসঅ্যাপ অর্থাৎ ফেসবুক কোম্পানি । এবার বাজারে চলতি অন্যান্য পেমেন্ট অ্যাপের মতো ফেসবুক কোম্পানির এই প্ল্যাটফর্মেও টাকা পাঠানো যাবে। এর জন্য কেন্দ্রীয় সরকার ও রিসার্ভ ব্যাংকের প্রয়োজনীয় অনুমতি পেয়ে গিয়েছে ফেসবুকের এই পেমেন্ট অ্যাপ, যার নাম হতে চলেছে ‘হোয়াটসঅ্যাপ পে’ (WhatsApp Pay India)।

WhatsApp
WhatsApp

দীর্ঘদিন ধরে পরীক্ষামূলক ভাবে এই অ্যাপের ট্রায়াল রান করে চলছিল হোয়াটসঅ্যাপ। প্রায় ১০ লাখ ব্যাবহারকারী নিজেদের মধ্যে ব্যবহারও করছিলেন ‘হোয়াটসঅ্যাপ পে’। ২০১৮ সাল থেকে আইসিআইআই ব্যাঙ্কের সঙ্গে যৌথভাবে এই ট্রায়াল রান চালানো হয়েছিল। যদিও এই ট্রায়াল রান সরকারি ভাবে অনুমোদিত ছিল না। অনুমোদনের বিষয়টি নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের সঙ্গে আলোচনা চলছিল দীর্ঘদিন ধরেই । অবশেষে, ন্যাশনাল পেমেন্টস কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়ার প্রাথমিক ছাড়পত্র পেয়ে গেল হোয়াটসঅ্যাপ পে।

এতদিন সরকারের সঙ্গে মূল সমস্যার বিষয়টি ছিল হোয়াটসঅ্যাপ পে-র ডেটা বা তথ্য কোথাকার সার্ভারে জমা হবে, তা নিয়ে । সরকার চাইছিল স্থানীয় ভাবে অর্থাৎ ভারতেই তা জমা হোক । আপাতত ঠিক হয়েছে, প্রাথমিক ভাবে হোয়াটসঅ্যাপ পে, পুশ পদ্ধতিতে প্রায় এক কোটি ব্যবহারকারীর কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে। তারপর সরকারের বেঁধে দেওয়া সব মাপকাঠি পূরণ করতে পারলে সবার জন্য এই প্ল্যাটফর্ম খুলে দেওয়া হবে।

অনেকেই মনে করছেন, গুগল পে, ফোন পে, পেটিএম, মোবি কুইক, আমাজন পে-এর মতো অন্যান্য পেমেন্ট অ্যাপের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়াবে হোয়াটসঅ্যাপ পে। কারণ ভারতে প্রায় ৪০ কোটি হোয়াটসঅ্যাপ ইউজার রয়েছেন। এই বিশাল সংখ্যার ইউজারদের কাছে খুবসহজেই পৌঁছে যাবে হোয়াটসঅ্যাপ পে, এ নিয়ে কোনো সন্দেহের জায়গা নেই।

এ বছরের জানুয়ারি মাসেই ফেসবুক কর্তা মার্ক জাকারবার্গ নিজেই জানিয়েছিলেন, ছ’ মাসের মধ্যে চালু হয়ে যাবে হোয়াটসঅ্যাপ পে। তিনি আরো বলেন, ‘হোয়াটসঅ্যাপে ছবি পাঠানো যেমন সহজ, তত সহজেই এই প্ল্যাটফর্মে পাঠিয়ে দেওয়া যাবে টাকা’। আর খবর শোনার পর থেকেই অপেক্ষায় আছে হোয়াটস্যাপ ব্যাবহারকারীরা, কারণ এই সফটয়ারে গোপনীয়তা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *